ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

সম্প্রতি আমার অফিসের বস (ভাইয়া ) একটা জব প্রোপোজাল পেয়েছেন । স্যালারি মোটামুটি অনেক বেশি । নতুন করে কোম্পানি হচ্ছে এবং সারাদেশ থেকে মানুষ নেয়া হচ্ছে । ভাইয়াকে জেলা কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিতে চায় । কোম্পানির নাম রূপসীপ্রপার্টিস_লিমিটেড‬। এদের কাজ মূলত মানুষকে মানুষকে বাড়ি করার জন্য লোন দেয়া ( এখনো শুরু হয়নি ) । প্রাথমিক অবস্থায় এরা ৪/৬/১০ লক্ষ টাকা লোন দিবে । এজন্য গ্রাহক কে ৩০০ টাকা দিয়ে আবেদন ফর্ম পুরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজ সহ জমা দিতে হবে ।

কোম্পানির টার্গেট প্রতিটা জেলা থেকে প্রথম ছয় মাসে ১৮০০০ ফর্ম জমা পড়তে হবে এবং কাগজ যাচাই বাছাইয়ের করার পর তারা লোন দিবে । যেহেতু তারা উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশের প্রতিটা জেলাতেই কার্যক্রম শুরু করবে সেহেতু ধরে নিলাম প্রাথমিক অবস্থায় তারা ৫০টি জেলাতে তাদের কাজ শুরু করবে। এখন তাদের টার্গেট অনুযায়ি যদি প্রতি জেলা থেকে ১৮০০০ আবেদন জমা পড়ে তাহলে ৫০ টি জেলা থেকে আবেদন পড়বে ৫০*১৮০০০=৯০০০০০(নয় লক্ষ )। তাহলে ছয় মাসে তাদের ফর্ম বিক্রি করে মোট টাকা আসবে ৯০০০০০*৩০০=২৭০০০০০০০(২৭ কোটি টাকা )। আমার ধারনা আবেদন আরো বেশি পড়বে। তারা বলতেছে যে আবেদন ফর্ম যাচাইয়ের পরে সবাইকে একসাথে লোন দিবে । এখন এই ৯ লক্ষ মানুষকে যদি এভারেজে ৬ লক্ষ টাকা লোন দেয় তাহলে মোট আসবে ৫৪ হাজার কোটি টাকা!

আসলে এটা আবার ধান্দাবাজি নয়তো? দেখা যাচ্ছে ফর্মের টাকা তুলেই কোম্পানি লা পাত্তা হয়ে গেল। সন্দেহের অবশ্য কিছু কারণ আছে । তাদের যদি লোন দেয়ার ইচ্ছা থাকে তাহলে ছয়মাস অপেক্ষা করে প্রতি জেলায় ১৮০০০ ফর্ম আগে নিশ্চিত করবে ক্যান? তারা তো রেগুলার প্রসেসিং করে ধীরে ধীরে সবাইকে লোন দিতে পারে। কিন্তু সেটা তারা করছেনা । এরা হয়তো আবার ডেসটিনি, ইউনিপে এর মত ধান্দাবাজি শুরু করবে!

অবশ্য সরকারের উপর মহলের লোক না থাকলে এসব উদ্যোগ হাতে নেয়া যায়না! বাংলাদেশে যখন প্রথম ইউনিপে তাদের কার্যক্রম শুরু করে তখন বাংলাদেশ চীন মৈত্রী সম্মেলন কেন্দ্রে অতি ধুমধাম করে উদ্বোধন হয়, পরের ঘটনা সবার জানা। সাধারণ মানুষের টাকা নিয়ে ওরা রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেল। পরে ওদের ব্যাংক একাউন্ট সরকার জব্দ করে নিলো। ওই টাকাগুলো কাদের ছিল? আপনার আমার মত সাধারণ মানুষের। সরকার কি সেই জব্দকৃত টাকাগুলো মানুষকে ফেরত দিয়েছে? ডেস্টিনির মত একটা প্রতিষ্ঠান সম্ভবত ১০ বছর চলার পরে সরকার বললো এরা অবৈধ! আগে সরকারের নজর ছিলো কোথায় তাহলে? পরে একাউন্ট জব্দ করে কি সেই টাকা গুলো মানুষকে ফেরত দিয়েছে নাকি মন্ত্রী এমপিরা ভাগ বাটোয়ারা করে নিয়েছে?

হর হামেশা এসব হায় হায় কোম্পানির উদ্ভাবন হচ্ছে। একটা সময়ে এরা জণগনের টাকা মেরে দিয়ে উধাও হয়ে যায় । আর যারা উধাও হয়ে যাওয়ার পুর্বেই ধরা খেয়ে যায় তাদের টাকাগুলো জব্দ করা হয় । এই টাকা গুলো তো জণগনের, তাহলে সরকার ফেরত দেয়না কেন? আসলে এসব ক্ষেত্রে জণগনের শুধু লস আর লস ! ধরা না খেলে ওই কোম্পানির লাভ আর ধরা খেলে সরকারের লাভ। লস যা হওয়ার আপনার আমার মত সাধারণ মানুষেরই হবে। সরকার ওদের ধরে ক্রেডিট নিবে কিন্তু আপনার টাকা আপনাকে ফেরত দিবেনা ।

এই সরকার ওদের ব্যবসা করার অনুমতি দিবে আবার সেই সরকারই ওদের কাছে থাকা জণগনের টাকা জব্দ করে নিবে! আপনার আমার টাকা ওই কোম্পানি নিয়ে নিচ্ছিলো অবৈধ ভাবে আর সরকার সেই টাকা নিয়ে নিবে বৈধ ভাবে! এসব ব্যবসাদার থেকে সতর্ক থাকা উচিত সকলের । লোভ করে নিজের পকেটের টাকা খসাবেন না ।