ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

বাজারে ব্যাপক হারে জাল টাকার নোট ছড়িয়ে পড়েছে। আর সেজন্যেই জাল নোটের ব্যাপারে আরো বেশি সতর্ক থাকতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গতদিন একটি টিভি চ্যানেলের খবরে দেখলাম জাল টাকা প্রস্তুতের সাথে জড়িত কয়েকজন মেশিনসহ গ্রেপ্তার হয়েছে। খবরের সূত্রে জানা যায় বাজারে গত কয়েক মাসে প্রায় পঁচিশ কোটি টাকার জাল নোট এসেছে। আর এই জাল টাকা মানুষের হাতে গিয়ে মানুষ প্রতারিত হতে পারে এবং হচ্ছে। সুতরাং টাকা ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমাদেরকে আরো সতর্ক হতে হবে।

টাকা ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে, কোনভাবেই যাতে আমরা জাল টাকার দ্বারা প্রতারিত না হই সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে, এটি ঠিকই আছে। কিন্তু ইদানিং আসল টাকার নোট দ্বারাও আমরা প্রতারিত হচ্ছি। যেমন: নতুন যে ৫০০ টাকা, ১০০ টাকা, ২০ টাকা এবং ৫ টাকার নোট বেরিয়েছে সেগুলো নিয়ে প্রায়শই আমদেরকে বিপাকে পড়তে হচ্ছে। ৫০০ টাকার নোট এবং ২০ টাকার নোট প্রায় একই রকম। আবার ৫০০ টাকার নোট এবং ৫ টাকার নোটও প্রায় একই রকম। অনান্য নোটের বেলায় একই অবস্থা।

এইতো সেদিন আমি রাতে রিক্সা করে বাসায় ফিরছিলাম। রিক্সা ভাড়া দিতে গিয়ে ভুলক্রমে ৫০০ টাকার নোটকে ৫ টাকা ভেবে দিয়ে আসলাম। বাসায় ফিরে দেখি আমি ৫০০ টাকার নোটটি রিক্সাওয়ালাকে দিয়ে এসেছি আর ৫ টাকার নোটটি আমার কাছেই রয়ে গেছে। তখন হতবাক হওয়া ছাড়া আমার আর উপায় নেই। বাসা থেকে বেরিয়ে রিক্সাওয়ালাকে পেলাম না। কাজেই আমার ৫০০ টাকা গেল।

সেদিন শপিং সেন্টারে ঈদের কেনাকাটা করতে গেছি, কাপড় কিনে দোকানদারকে ৫০০ টাকার দু’টি নোট দিলাম। দোকানদার খুব ভালো করে নোটগুলো দেখে নিয়ে তারপর জমা নিলেন। আর বললেন, ইদানিং যে নোটগুলো বেরিয়েছে তা চিনে নিতে খুব কষ্ট হচ্ছে। এই ঈদের বাজারে ভিড়ের মধ্যে কী যে হয় বুঝতে পারছি না। দোকানদারের কথাবার্তায় মনে হল, তিনি খুবই বিরক্ত। এরকম আরো কয়েকজনের সাথে নতুন ৫০০ টাকা ১০০ টাকা ২০ টাকা এবং ৫ টাকার নোট সম্পর্কে আলাপ করে বুঝতে পারলাম সবাই খুব একটা সন্তষ্ট নয়।

যাক, নতুন নোট যখন বেরিয়ে গেছে তখন সেগুলো তো ব্যবহার করতেই হবে। আর সেজন্যেই নোটগুলো খুবই সতর্কতার সাথে আমাদেরকে ব্যবহার করতে হবে। কেউ যাতে প্রতারিত না হন সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে। আর জাল নোটের ব্যাপারে তো অবশ্যই সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

***
ফিচার ছবি: http://banglalifestyle.evergreenbangla.com থেকে সংগৃহিত