ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

জামাতে ইসলাম ১৯৭১ এ ইসলাম রক্ষার জন্য যুদ্ধ করেছিল নাকি অখন্ড পাকিস্তানের জন্য। ইসলামের জন্য হলে তো স্বাধীনতাকে সমর্থন করার কথা,একটি স্বাধীন ইসলামিক দেশের আশায়। তারা ইসলামকে রক্ষার জন্য নাকি পাকিস্তানি বাহিনীকে সহযোগিতা করেছিল। ইসলামের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্কটা কী? তাদের জাতির পিতা কায়দে আযম পাড়ার ছেলেদের মার্বেল খেলতে দেখে তা না খেলে ক্রিকেট খেলতে বলেছিলেন এমন একটা কাহিনী শুনেছি কিনতু পাড়ার ছেলেদেরকে নামাজের কথা বলেছেন কিনা সে কাহিনী শুনিনি। ইতিহাস বলে যুগে যুগে বিভিন্ন কৌশলে এরা ইসলামকে ধ্বংসই করতে চেয়েছিল। অভিবক্ত ভারতে এদের পূর্বসূরিরা মুসলমানদের জন্য ইংরেজী শিক্ষা হারাম বলে ফতোয়া দিয়ে বাঙালী মুসলমানদেরকে শিক্ষার আলো থেকে এমন এক অন্ধকার জগতে ঠেলে দিয়েছিল যার খেসারত আজও আমরা দিয়ে যাচ্ছি। ৭১ এর মত ৪৭ ও এরা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিল। জাতির সংকটময় মুহূর্তে কোন ভূমিকা রাখার মত যোগ্যতা এদের নেই এরা তখন পক্ষ খোজে। পক্ষেও কাজ না হলে বাংলা ভাই, আবদুর রহমানদের তৈরী করে।প্রায় শত ভাগ মুসলিমের দেশে ইসলাম কায়েম দূরে থাক জাতীয় নির্বাচনে অন্যের উপর ভর করেও নির্বাচনী ফলাফল দেখে এদের বোধদয় হয় না জনগন তাদের কতটা ঘৃণা করে।এরা অশান্তির জামাতে ইসলামের রক্ষাকারী, শান্তির ধর্ম ইসলামের নয়।