ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

মায়ান সভ্যতার কেলেন্ডারে ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বরের পর আর কোন তারিখ ছিল না যার কারনে অনেকে ধারনা করেছিল এই তারিখে পৃথীবি ধংস হয়ে যাবে।২০১২ সাল ও ২১ ডিসেম্বর তারিখটি হারিয়ে গেল কালের অতলে। আজকে ২৩ ডিসেম্বর, আমরা বেঁচে বর্তে আছি।

আমাদের আধুনিক সভ্যতার কি এমন কোন কেলেন্ডার আছে, যার কোন পর নেই? আছে হয়তো! না হয় পৃথীবিতে এত সমস্যা থাকা সত্বেও কেন সারা পৃথীবির উন্নত দেশের বাঘা বাঘা বিজ্ঞানিরা বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার খরচ করে মহাবিশ্ব হাতড়ে বেড়াচ্ছেন মানুয বসবাবাসের উপযোগী কোন গ্রহ খুঁজে পাওয়ার আশায়।

এরকম কোন গ্রহ পাওয়া গেলে আমাদের দেশের সাধারন জনগনকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত কারন আমরাই পৃথীবির একনাম্বার অনাবাসযোগ্য রাজধানির মালিক!অতএব শুধু দুর্নীতিতে নয়,এখানেও আমরা এক নাম্বার।

আমাদের জনগন বাঁচার জন্য গ্রহ খোঁজে না,খড়-কুটো খোঁজে,তা ও জোটে না।আমাদের রাজনৈতিক নেতারা একসময় সবকিছু সাবাড় করতেন না ,কিছু খড়-কুটো রেখে যেতেন, এখন দিন পাল্টেছে,সব কিছু চেটে-পুটে খান ,অবশিষ্ট থাকে না।

আমাদের একটি রাজনৈতিক কেলেন্ডার প্রবর্তন করা অতি জরুরী,তাতে রাজনীতিবিদরা কত তারিখে অবরোধ করবেন,হরতাল করবেন,সভা,মিছিল করবেন তা নির্দিষ্ট করা থাকবে এতে জনগনের কোপানি,পোড়ানি,ভোগান্তি থেকে আত্মরক্ষা করা সহজ হবে।
মায়ান সভ্যতার কেলেন্ডারের মত সেই রাজনৈতিক কেলেন্ডারেও ২১ ডিসেম্বরের মত একটি সমাপ্তি তারিখ থাকবে, সেই তারিখের পর কি হবে শুধু জনগন জানবে।