ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

এই সরকার জনগনের সরকার, বাংলাদেশীদের সরকার। নানাকারনে সরকারের অবস্থা নাজুক। তাই সরকারকে অন্তত দুর্নীতির বিরুদ্ধে সব ক্ষেত্রেই কঠিন কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হবে। দুদক-ফুদক বন্ধ করে দিতে হবে। কারন সচেতনেরা খবর রাখেন দুদকের ভিতরেই দূর্নীতির আশ্রয় রয়েছে। শুধু সিদ্ধান্ত নিলেই হবে না। এর সুফল জনগনকে দ্রুত পৌছে দিতে হবে। ভালোটা জনগন বুঝে। কাজেই নিজের ঢোল নিজেকে না পেটালেও চলবে। ভালো কাজ হলে জনগনই যেকোনো বিরোধীদলের অহেতুক বাড়াবাড়ি রকমের আন্দোলনকে থোরাই কেয়ার করবে। আমরা শান্তিকামী সাধারন জনতা। দ্রব্যমূল্য উর্ধ্বগতির কারনে নানাভাবে অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। মধ্যস্বত্বভোগীরা আমাদের জীবন অনেক কঠিন করে তুলেছে।

ভুল অপরিপক্ক সিদ্ধান্তের কারনে কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎ প্রকল্প করে কারো কোনো লাভ তো হলোই না উলটো একটি স্বনামধন্য কোম্পানিকে পথে বসিয়েছে আর হরিলুট করেছে, সরকারই ভালো জানবে। তাই সরকারকে এসব বিষয়ে ব্যবসায়ীক দৃষ্টিকোণ আনতে হবে। শুধু ভর্তুকি দিয়ে গেলে হবেনা। কারখানাগুলোতে চড়া দামে বিদ্যুৎ দিয়ে সেখান থেকে সাধারনকে ভর্তুকি দিতে হবে। আমাদের এই অতি অসামাঞ্জস্যপূর্ণ সমাজ ব্যবস্থায় সমাজতন্ত্রের ছোঁয়া ধীরে ধীরে লাগাতে হবে। এছাড়া মুক্তি নেই এ জাতির, ৯৫% মানুষ আর কতো বঞ্ছিত থাকবে?