ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

সেদিন তার ভাষণে উঠে আসে স্বাধীনতার ডাক। তার কথায় সাড়া দিয়ে বাঙালি সেদিন নেমেছিলো যুদ্ধের ময়দানে প্রাণ বাজি রেখে, ছিনিয়ে এনেছিল বিজয়ের লাল সবুজের পতাকা। তবু কেন আজ আমরা দ্বিধা বিভক্ত? বঙ্গবন্ধু তো দল বা ব্যক্তির সম্পদ নয়, তিনি তো সবার। তার ডাকেই তো সেদিন সবাই ছুটে গিয়েছিলো।তারপরও কেন যেন বঙ্গবন্ধু কে বার বার শুধু একটি দলের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা হয়। আমরা কি পারি না দলমত নির্বিশেষে তার যথযোগ্য সম্মান দিতে।

আমাদের পার্শ্ববর্তী ভারতের ইংরেজ বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দানকারী নেতাদের দলমত নির্বিশেষে সকলেই শ্রদ্ধা করে। তবে আমরা কেন পিছিয়ে? আমরা কি পারি না আমাদের মহান নেতাকে দলমতের উর্ধ্বে গিয়ে তার প্রাপ্য সম্মান দিতে? আজ আমরা তার জন্য অহংকার করতে পারি বাংলাদেশ কে নিয়ে। তার জন্যই তো আমরা এই শস্য-শ্যামল ঐশ্বর্যের লীলাভূমি সোনার বাংলা পেয়েছি, তিনি তো সবার নেতা। বঙ্গবন্ধু তো আমাদের অহংকার, তহলে আমরা কেন তাকে একটি দলের মধ্যে আবদ্ধ রাখবো?

মুক্তিযুদ্ধের এত বছর পর কেন তাকে নিয়ে এত দ্বিধা-দ্বন্দ্বের রাজনীতি? তিনি তো আমাদের মহান নেতা। তিনি সেদিন আমাদের মুক্তির পথ দেখিয়েছিলন, দিয়েছিলেন অনুপ্রেরণা। তবু কেন আমাদের মাঝে এতো সংশয়? আমরা কি পারি না আমাদের নেতার জয়গান করতে।

আসুন সব দ্বিধা ভুলে দলমতের উর্ধ্বে গিয়ে সেই মহান নেতার স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তুলি। ‘আসুক শত বাঁধা, গড়বো সোনার বাংলা’ এই হোক মোদের প্রত্যয়।