ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

চলেন সরকার কি চায়, জানি :

১) সরকার চায় না আপনি শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করেন, করলে নিজ দায়িত্বে ধরা খান না আত্মহত্যা করেন সে আপনার বিষয় ।
২) সরকার চায় না আপনি সরকারী সঞ্চয়পত্র কিনেন, সেজন্য সঞ্চয়পত্রের সুদের উপর উচ্চ কর আরোপ করেছে যেটা বিশ্বের আর কোথাও নাই ।
৩) আপনি সমবায় সমিতিতে বিনোয়োগ করেন, সেইটাও চায় না সরকার । নাহলে সরকারী অনুমোদনের পরও কেমনে দেশের সিংহ ভাগ সমবায় সমিতি ই ভুয়া ।
৪) কোন এমএলএম ব্য
বসা আপনি করেন, সেইটা কখনোই চায় না সরকার । কিন্তু , সরকারের লোকজনকে সাথে নিয়ে প্রকাশ্যে এই ব্যবসা হচ্ছে। নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কোন নীতিমালা নেই গত ২০ বছর যাবত্‍ ।
৫) আপনি নিজে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান দিবেন ভাবছেন ? নিশ্চিত, ধরা খাইবেন । ঐ প্রতিষ্ঠানকে সরকারী দলের জন্য চাঁন্দা দিতে হবে, নাইলে দুদক তো আছেই ।
৬) আপনি ঝামেলায় যাইতে চান না ? ভালো । ব্যাংকে টাকা রাখবেন ? তুমুল ব্যাংক চার্জ, উপর্যুপরি করারোপ আর লোন লইয়া আপনের টাকা দিয়া সরকার ১২০ জন প্রতিনিধি নিয়া অলিম্পিক গেমসের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করতে যাইব ।
৭) আপনি নিঃস্ব, বাস্তুহারা বইল্যা গ্রামীন ব্যাংকের দ্বারস্ত হইবেন, সরকার তা কখনোই চায় না । বুঝতাছেন না ?

সরকার চায়, আপনি হুদাহুদি সরকারে চামচামি করেন, লাত্থি-গুতা খাইলেও চুপচাপ থাকেন । বাক স্বাধীনতা, মানবাধিকার আর গণতন্ত্রের কথা কইয়া চিক্কুর পাইরেন না । আর না পারলে মইরা যান ।

যেমনেই হোক স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপনের সময় যেন সরকারী দল ছাড়া আর কোন মানুষ না থাকে ।

জয় বাংলা
সরকারী দল চিরজীবী হোক ।