ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

নিজের ইচ্ছে না থাকা স্বত্বেও বোর্ড প্রেসিডেন্টের অনুরোধেই সাকিবকে সজিব ওয়াজেদ জয়ের অনুষ্ঠানে যেতে হয়েছিলো। পরে সাকিব স্পষ্ট করে ব্যাপারটা জানিয়ে দেয় এবং এও বলে দেয় যে সে রাজনীতিতে আগ্রহী নয়।

এইটাই বোর্ড প্রেসিডেন্টের ক্ষোভ, এইটাই আওয়ামীলীগারদের ক্ষোভ। বুঝি, ছাত্রলীগ, যুবলীগ কিংবা আওয়ামী লীগের কেউই তাঁর পক্ষে কথা বলে না কেন! সাকিব গরুর পালের গরু হইতে চায় নাই!

পাপন কোন এখতিয়ারে একজন খেলোয়ারকে একটা রাজনৈতিক দলের অনুষ্টানে পাঠায়? এইটার জবাব চাইছেন কেউ পাপনের কাছে?

এই দেশে যা-ই করো ভাই, আওয়ামী লীগে নাম লিখায়ে করো, নাইলে জীবন শেষ!