ক্যাটেগরিঃ স্বাস্থ্য

 

আকিকার খিচুড়ি-মাংস খেয়ে শুক্রবার রাতে মানিকগঞ্জ পৌর এলাকার খিলিন্ডা গ্রামের ফাতেমা নবাব দারুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার ৩২ শিশু ছাত্র অসুস্থ হয়ে পড়েছে। অসুস্থদের মধ্যে ১৬ জন মানিকগঞ্জ আধুনিক সদর হাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছে।

মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা খবিরুল আলম চৌধুরী জানান, তাঁর ভাতিজা অ্যাডভোকেট ইমরুল আলম চৌধুরীর ছেলের আকিকা উপলক্ষে এলাকাবাসীর সঙ্গে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসার সব ছাত্রকেও দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল। দুপুরে খিচুড়ি এবং খাসির মাংস দিয়ে সবাইকে আপ্যায়ন করা হয়। দাওয়াতী অন্যান্য লোকজনের সাথে মাদ্রাসার ছাত্ররা এক সাথেই একই রান্না করা খাবার খেয়েছে। দুপুরে দাওয়াত খেলেও বিকেলের পর থেকেই শুধু ছাত্রদের একজন দুজন করে অসুস্থ বোধ করতে থাকে। অবস্থার অবনতি ঘটলে এদের সবাইকে সন্ধ্যার পর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাক্তার আব্দুল মালেক জানায়, সাড়ে সাতটার দিকে অসুস্থরা হাসাপাতালে আসতে থাকে। ৩২ জন চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে এসেছে। যারা সবাই বয়সে শিশু। এরা সবাই পেট ব্যথা এবং প্রচন্ড মাথাব্যথা নিয়ে হাসপাতালে এসেছে। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অসুস্থরা সবাই ফুড পয়জনিংয়ের শিকার হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ হবার পর এদের ১৬ জন হাসপাতাল ত্যাগ করেছে । বাকিরা হাসপাতালে ভর্তি আছে । এদের চিকিৎসা চলছে । তবে এরা সবাই আশঙ্কামুক্ত।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোজাম্মেল হক জানান, বিষয়টি তাদের নজরে এসেছে। অসুস্থরা মোটামুটি সবাই সুস্থ। তারপরও বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।