ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

যাদুর এই শহরে প্রতিটি ক্ষেত্রে জিম্মি হওয়া নিরীহ প্রানীটির নাম মানুষ।

blog pic

ঢাকা সিটিকে দ্বিখন্ডতি করেও উন্নয়নের সুফল পাওয়া যায়নি।

জলাবদ্ধতা নিরসনে মাত্র এক বছরেই সব ঠিক হওয়ার প্রতিশ্রুতিও অবাস্তব। নির্বাচনে অনেক প্রতিশ্রুতি দিলেও বাস্তবে মেয়রদ্বয় অসহায়।

অতিবৃষ্টিতে যেহেতু জলাবদ্ধতা ও যানজটে নগরবাসীর দুর্ভোগ বাড়ে তাই কিছু দীর্ঘ ও স্বল্প মেয়াদী পরিকল্পনা নেওয়া যেতে পারে।

১. পলিথিনের উৎপাদন ও ব্যবহার বন্ধে কঠোর আইনি পদক্ষেপ এবং পাটের ব্যাগ ব্যবহারে উৎসাহী করা।

২. খাল দখলমুক্ত এবং শুকনো মৌসুমে ভরা নালা ও নর্দমার তলদেশ পরিস্কার করা।

৩. ফুটপাত দখলমুক্ত এবং নির্বিগ্নে পথচারীদের চলাচলের ব্যবস্থা করা।

৪. প্রাইভেট গাড়ি রেজিষ্টেশন সীমিতকরণ এবং আধুনিক, যাত্রীসেবার মান বজায় রেখে বেসরকারীভাবে পাবলিক বাস পরিচালনা করা।

৫. যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং ও রাস্তার উপর নির্মান সামগ্রী রাখা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রন করা।

৬. কাছাকাছি লিংক রোডগুলো বন্ধ করে ওয়ানওয়ে রাস্তা চালু করা।

৭. প্রয়োজনে সেনাবাহিনী দিয়ে ট্রাফিক কন্ট্রোলের ব্যবস্থা এবং প্রযুক্তি নির্ভর  করা।

৮. মশক নিধনে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করে নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা।

( ৮৮ সালের বন্যাতেও শহরে এমন পানি উঠে নাই। ঝালমুড়ি পর্যন্ত পলি প্যাকে কাষ্টমাইজ। পরিশেষে আসুন আমরা সুনাগরিক হতে না পারলেও নাগরিক হই)।