ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

বছরের প্রথম চেরীফুলের ছবি ভরা মেমোরী কার্ড হাতে থাকতেও আজকের লেখার প্রসঙ্গ বিশ্বকাপ । মওকা ছোড়না নেহি wink emoticon
দেখেন , স্টার স্পোর্টস বা জি বাংলাতে এই মওকা মওকা দেখাইলেও আমার বাড়িতে আপনার বাড়িতে আপনার মা বোনেরা বা আমার মা বোনেরা এই চ্যানেল দেখা ছাড়বে না, সরকারও নিষিদ্ধ করবে না । করলে তার নাম সরকার হইত না , হইত জনদরদী দেশাত্মবোধ সম্পন্ন সরকার । এই ঘটনা আজই প্রথম না , তবে এবার তারা চরম সীমাও লঙ্ঘন করেছে এইটা জেনেই যে এইটা আপনারাই দেখবেন এন্ড জনপ্রিয় করবেন । ওদের টেকনিক সফল ।আপনারা গণহারে শেয়ার করছেন, কমেন্ট লাইকে ইন্টারনেট উথাল পাথাল, লাভটা কার । আপনার কাজ আপনি কতটুকু করছেন, কতজনের ফেসবুক ওয়ালে বাংলাদেশ ভারতকে হারানোর সেই ২০০৭ এর ভিডিও শেয়ার করছেন? কতজন এশিয়া কাপের সেই জয় শেয়ার করেছেন?

বাংলাদেশকে কীভাবে দেখে বা বিচার করে তা বাংলাদেশের উন্নয়নের ক্ষেত্রে কী কাজে দেয় তা আমার জানা নাই। তবে আমার মনে হয় স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশ এইখানে আজ দাঁড়িয়ে আছে কে কী বলেছে বা দেখিয়েছে তার উপর ভিত্তি করে নয় বরং নিজ কাজ কর্ম মেধার প্রমাণ দিয়ে । ভবিষ্যতেও এটাই হবে ।

কতিপয় কুকুর সীমান্তের ওপারের খাঁটি ফেনসিডিলে আসক্ত হইয়া লম্ফঝম্ফ করতেছে তাতে অস্বাভাবিকতা নাই, কিন্তু তাদের গায়ের জলাতঙ্ক ভাইরাস সীমান্তের এপারে আসতে যাতে না পারে সেইজন্যই সীমান্ত বেড়াটা দেওয়া আছে । আশা করি সরকার তার ব্যবহারটা শিখবে একদিন । তবে তার আগে , আমার অনুরোধ এই মওকা মওকা ভিডিও শেয়ার করা বাদ দিয়ে আমাদের ক্রিকেটের গৌরবের ভিডিওগুলো বেশি করে শেয়ার করুন । তাতে আমাদেরই মনোবল বাড়বে । জয় বাংলা বলে মনটাকে শক্ত করুন আর ভাবুন , আসছে দিনে মওকার সদ্ব্যবহার আমাদের টাইগার রা করবেই এবং কুকুরগণের ঘোর কাটাবে ।
জয় বাংলা ।