ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

xeno+murder+1

ডাকনাম মাদিবা, পৃথিবীর মানুষের কাছে তার পরিচিতি , তিনি একজন এবং একমাত্র নেলসন ম্যান্ডেলা । দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে শুরু করে সমগ্র পৃথিবীতে সাদা কালো মানুষের বিভেদ দূর আর শান্তির অপার বার্তা নিয়ে যার জীবন কেটেছে দুর্বিষহ কষ্টে, তবু তিনি স্বমহিমায় ক্ষমা করে গেছেন তার পিছনের ইতিহাসকে । সামনে তাকিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে গড়ে তুলতে চেয়েছেন পৃথিবীর কাছে দৃষ্টান্ত, বলা বাহুল্য হাল সময়ে তার সেই স্বপ্ন অবশ্যই গতি পেয়েছিল । কিন্তু গত দুই দিনের দক্ষিণ আফ্রিকার দিকে তাকিয়ে দেখুন । কষ্টে মাথা নুয়ে যাবে । সেই মাদিবার দেশের মানুষ আগুন জালিয়ে বিদেশী নাগরিকদের তাতে নিক্ষেপ করছে। শিশুর পিঠে ছুরির আঘাত, যুবকের ছিন্নভিন্ন শরীর, শরীরের মাংস টুকরো করে কেটে নিয়েছে কিছু মানুষ, মানুসের মাংস । লুটপাট হয়েছে অভিবাসীদের ঘর । সর্বশান্ত হয়েছেন অগণিত মানুষ ।

ঘটনার সূত্রপাত জুলু রাজার বক্তবকে কেন্দ্র করে । আফ্রিকার বহু বছরের পুরানা রাজবংশ জুলু , যাদের দক্ষিণ আফ্রিকার রাজনীতিতে প্রভাবটা বোঝাতে হলে ভারতের বিজেপি রাজনীতিতে শিবসেনাকে উদাহরণ হিসাবে দাড় করাতে হবে । সেই জুলু রাজবংশের বর্তমান রাজা স্থানীয় দক্ষিণ আফ্রিকানদের বোঝাতে সক্ষম হন , যে বিদেশীরা এসে তাদের দেশে ঘাটি গেড়ে, ব্যবসা বাণিজ্য চাকরি সব কেড়ে নিচ্ছে । দক্ষিণ আফ্রিকানদের উচিত তাদের উচিত শিক্ষা দিয়ে দেশে ফেরত পাঠানো। পীর সাহেবের আদরের মুরিদদের মতই উন্মাতাল দক্ষিন আফ্রিকানরা যার যা কিছূ আছে তাই নিয়ে বেরিয়ে পড়ে বিদেশী অভিবাসীদের উচিত শিক্ষা দিতে । বর্বরদের কায়দা এক ও অভিন্ন, খুন, রক্ত আর লুটপাট ডাকাতি । এখানেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

বিশ্বের সংবাদমাধ্যমগুলোতে যতটা না খবর পেয়েছি তার চেয়ে বেশি পেয়েছি ক্ষয়ক্ষতির শিকার আমার বিদেশী বন্ধুদের কাছে । শুনে ইস্তক, মাদিবার মুখটাই মনে পড়ছিল । আরও মনে পড়ছিল চোখে না দেখা ১৯৪৭ এর দেশভাগ , সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা, বাবরি মসজিদ কান্ড সহ আরও অনেক কিছু । সেলুলয়েডের পাতায় দেখা ১৯৪৭ আর সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার খুন গুলো আমাকে কতবার যে মাঝরাতে ঘুম থেকে উঠিয়ে দিয়েছে । আজ দক্ষিণ আফ্রিকানদের খুনের নেশা আমার মত অনেকের ঘুম কাড়বে । অশান্ত পৃথিবীর ভদ্রলোকদের তাতে কিছুই যায় আসেনা ।

শুধু ভাবি , আমাদের হাতেও তো জুলু রাজার মত রাজা আছে , তারাও যদি…!