ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

কথাটি প্রথম তুলেছিলেন সুলতান মির্জা তার “প্রসঙ্গ ইন্ডিয়া সফর: খালেদার ভগবান বদল!!” লেখায়, পরে বিডি ব্লগে অল্প কয়দিনে নিজেকে একজন দারুণ লেখক হিসেবে উপস্থাপনকারী রাশেদুজ্জামান তার “খালেদার নতুন ভগবান, আ.লীগারদের কাঁপন আর দুইয়ের চাপে পিষ্ট জনগণ” লেখায়। তাদের লেখায় এটা পরিষ্কার হয়েছে যে খালেদা জিয়া তার এতদিনকার “ভগবান” ছেড়ে দিয়ে “নতুন ভগবান” খুঁজে নিয়েছেন! অর্থাৎ খালেদার নতুন “ভগবান” হচ্ছে “ভারত”!

লেখা দুটো পড়ে আমার মনে অনেকগুলো প্রশ্ন জেগেছে, তার কিছু কিছু লিখছি। সব প্রশ্নের উত্তর আমি জানি না, তাই জনাব সুলতান মির্জা ও জনাব রাশেদুজ্জামান এর পাশাপাশি সম্মানিত পাঠকদের কাছেই আমি আমার প্রশ্নগুলি উপস্থাপন করছি, উত্তর জানবো বলে …

১। খালেদা জিয়া তো ভগবান বদলালেন কিন্তু তার স্বভাব কি বদলেছে?
২। তাহলে খালেদা জিয়ার “পূর্বতন ভগবান” কে ছিলেন?
৩। নতুন ভগবান কি এক প্রণামেই তাকে শিষ্যা হিসেবে মেনে নিলেন?
৪। উনার “পূর্বতন ভগবান” কি এত সহজেই তার শিষ্যার দলত্যাগকে মেনে নিলেন? বা “তিনি” কি পারবেন তাকে ছাড়তে? বা ছাড়তে চাইবেন?
৫। তাহলে নতুন পুরাতন মিলে উনার ভগবান কয়জন হলেন?
৬। এই নতুন ভগবানের স্থায়িত্বই বা কয়দিনের? এটা কি নির্বাচন পর্যন্ত? এরপর কি আবার দলবদল হবে?
৭। তিনি তো ভগবান বদল করলেন কিন্তু যারা তাকে “দেবী” মানে তারাও কি তার সাথে সাথে ভগবান বদল করেছেন? (অবশ্য জনাব মওদুদের ভগবান বদল নিয়ে আমি চিন্তামুক্ত আছি!)

প্রশ্নগুলো মাথার মধ্যে শুধুই ঘুরপাক খাচ্ছে! উত্তর চাই!