ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ঘটনাক্রমঃ

গত বছর, অর্থাৎ ১০ম সংসদ নির্বাচন আর তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে যখন আওয়ামীলীগ ও বিএনপি জোটের মধ্যে দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করেছে, আমাদের দেশীয় রাজনীতিতে সর্বদা হস্তক্ষেপ পছন্দকারী দেশগুলোর সুনীতি, কূটনীতি, চরমনীতিও যখন ব্যর্থ হয়ে যাচ্ছিল; পাশাপাশি জাতিসংঘের তারানকোও  তাল-কুল হারিয়ে দিশাহীন অবস্থায় বঙ্গদেশ থেকে যাই যাই করেছিলেন। সেই অবস্থায়- হটাৎ করেই বেগম জিয়া তথা ১৮ দলীয় জোট নেত্রীর পক্ষ থেকে তার আলোচক দল; জনাব এ কে খন্দকারকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান বানানোর একটা প্রস্তাব শেখ হাসিনা তথা ১৪ দলীয় জোটকে দিয়েছিল।

উক্ত প্রস্তাব আওয়ামীলীগের আলোচকবৃন্দের পছন্দ হলেও ঊর্ধ্বতন নেতৃত্বের আপত্তির কারণে সেই প্রস্তাব আর বেশিদূর এগোয়নি বলে তখন আমরা জেনেছিলাম।  অপরদিকে আওয়ামীপন্থী অনেকেই বিএনপির দেওয়া সেই প্রস্তাবে প্রথমে অবাক হলেও পরে মনে মনে খুশী হয়েছিল; নিজেদের লোক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান হওয়ার সম্ভাবনা দেখে। লাভের উপর লাভ দেখে!

বর্তমান ঘটনাক্রমে এটা প্রমাণ হয়ে গেছে যে,  যদি সেদিন বিএনপির দেওয়া সেই প্রস্তাব আওয়ামী লীগ মেনে নিয়ে; সেই সরকারেরই পরিকল্পনা মন্ত্রী জনাব এ কে খন্দকারকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার হিসেবে মেনে নিয়ে নির্বাচনে যেত; তাহলে আমরা আর একটা “লতিফুর কাণ্ড” ও “২০০১ মার্কা” নির্বাচন দেখতে পেতাম। পাশাপাশি এটাও দেখতে পেতাম আওয়ামী লীগের কর্মী সমর্থকদের একযোগে কচুকাটা ও হিন্দুদের উপর ধর্ষণ ও অত্যাচারের সাইক্লোন যেমনটা ঘটেছিল সাহাবুদ্দিন-লতিফুর-তারেক ট্রায়োর মিলিত প্লানে–শক্তিতে ২০০১ সালে।

নিশ্চিত !!!

এই প্রসঙ্গে আমার কিছু প্রশ্নঃ

১) বঙ্গবন্ধু সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী খুনি খন্দকার মোশতাক ও শেখ হাসিনা সরকারের প্রথম টার্মের প্রধান বিচারপতি জনাব লতিফুর রহমানের মত শেখ হাসিনা’র গত টার্মের পরিকল্পনা মন্ত্রী জনাব এ কে খন্দকারও কি আওয়ামীলীগে তথা সরকারে বা ক্ষমতাকেন্দ্রে একজন “অনুপ্রবেশকারী” হিসেবে ছিলেন- একটা বড় কিছু ঘটানোর জন্য?

২) বিএনপি নেতৃত্ব কি এটা জেনেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান হিসেবে জনাব এ কে খন্দকারের নাম প্রস্তাব করেছিলেন?

৩) এইরকম ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা কি এখানেই শেষ হয়ে গেছে; নাকি আরও অনেক অনুপ্রবেশকারী এখনো আওয়ামীলীগে স্লিপার হিসেবে রয়ে গেছে সুযোগের অপেক্ষায়?

৪) নাকি অনুপ্রবেশকারীদের তৃতীয় কোন পক্ষের মাধ্যমে আওয়ামীলীগে ঢোকানো হচ্ছে- যারা সময় সুযোগে তাদের নিয়োগকর্তার কথায় জেগে উঠছে, বিশ্বাসঘাতকতা করছে এবং ভবিষ্যতেও করবে?

১২/০৯/২০১৪, দুপুরঃ ১.১১