ক্যাটেগরিঃ স্যাটায়ার

বন্ধু কইলো, দেশের অন গোয়িং হরতাল বনাম অবরোধ বিতর্কে আমিও অংশ নিতে চাই! আমি বললাম, নিবা! এটা তো তোমার গণতান্ত্রিক অধিকার! বাঁধা দিচ্ছে কে?

বন্ধু কইলো তয় শোন- যেমন পেট্রোল বোমায় ‘পোড়া মানুষের’ মাংসের গন্ধে মানবতানুভুতি জাগে না আবার পিপার স্প্রে’তে ম্যাডামের শ্বাসকষ্ট হচ্ছে শুনেই আম দলের জ্বলানুভুতি খাইড়াইয়া যায়; ঠাস কইরা। তেমনি পার্থক্য হরতালে আর অবরোধে!

আমি কইলাম, মিল্লো না বন্ধু! ও কইলো, না মিল্লো! গেছে তো?

বললাম, তা গেছে !

আমাদের কথার মধ্যেই আর একবন্ধু বাম হাত ঢুকাইয়া দিয়া কইলো, হরতালে আওয়ামীলীগের নেতারা রাস্তায় নামে আর তাদের চ্যালারা সমানে লাফায়; অপরদিকে হরতাল বিএনপি ডাকলে নেতারা ল্যাপ গায় দিয়া বসায় ঘুমায়; আর তাদের চ্যালারা আঙুল চুষতে চুষতে চোরার ভিডিও দেখে দেখে বলকায়।

অন্যদিকে- অবরোধ আওয়ামীলীগ দিলে, খারাপ কাম জাইন্যাও নেতা-চ্যালারা দল বাইন্ধা স্ট্যান্ড-রাস্তা ব্লক মারে; আর অবরোধ বিএনপি ডাকলে- ম্যাডামের বাসার সামনে বালু ভর্তি ট্রাক খাড়াইয়া গেলেও রাস্থায় যানজট লাইগা যায়, পেট্রোল বোমার ভয় লাগে।

ওর কথা শুইন্যা আমি কইলাম, দ্যাখ! তোর প্রথম পয়েন্টটা মিল্লেও দ্বিতীয়টা মিল্লো না? ও বলল, না মিল্লে কি হইছে; কাছাকাছি গেছে না?

বললাম, গেছে; গেছে !!!

০৮/০১/২০১৫