ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

১)
আজ প্রায় ৩৩ দিন ধরে বিএনপি জোটের ডাকা দেশব্যাপী অবরোধ চলছে। চলছে পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে যাত্রী বোঝাই বাসে-ট্রাকে মানুষ পোড়ানোর নির্মম কাণ্ড। গতরাত ও আজ ভোররাত মিলিয়ে আগুনে পুড়ে মারা গেছে আরও প্রায় ৯ জন ‘জীবন্ত মানুষ’। সব ঘটনার কায়দা একই- রাতের আঁধারের সুযোগ নিয়ে খুনির দল ছুঁড়ছে পেট্রোল বোমা যাত্রী বোঝাই বাসে, পণ্য বোঝাই ট্রাকে আর পুড়ে মারা যাচ্ছে গরীব দুঃখী সাধারণ মানুষগুলো। এ যেন এক মানবমেধ যজ্ঞ! ইতিহাসে পড়েছি একসময় এই ভূমিতে গোমেধ, অশ্বমেধ যজ্ঞ হত; তাতে হাজার হাজার নিরীহ প্রাণী ধর্মের নামে, দেবতার সন্তুষ্টির নামে জীবন্ত পুড়িয়ে মারা হত। তবে কি বাংলার বুকে সেই প্রথা আবারো ফিরে এলো আরও নির্মম ভাবে? কারো ক্ষমতার খায়েশ পূরণ করতে? নিষ্ঠুর, চরম নির্মম এই খায়েশ? আপাতত আমাদের চেয়ে চেয়ে দেখা ও নিজেরা পুড়ে যাওয়ার অপেক্ষা করা ছাড়া আর কোন বিকল্প দেখছি না; যদিও ঘটনাগুলো চলছে গত একমাস ধরে।
২)
যারা এই অবরোধের আগুনে এখন পর্যন্ত পুড়ে মারা গেছে বা এখনো মারা যায়নি বা আহত হয়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছে তার সবাই বুঝেছে আগুনে পোড়ার জ্বালা কি, কত ভয়ংকর? এই আগুনে শুধু তাদের শরীরই পোড়েনি পুড়েছে তার ও তাদের পরিবারের ভাগ্যও। দেখা যাচ্ছে- যারা পুড়েছে তাদের প্রায় সবাই তাদের পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তাই তাদের পরিবারের সামনে আগামীতে শুধুই দুর্দিন। এই যেমন- স্বামী পরিত্যক্তা অন্ধ মায়ের একমাত্র সন্তান মারা গেছে ট্রাকে হেলপারের কাজ করতে যেয়ে; যাকে বাংলার প্রবাদে বলা হয়েছিল অন্ধের যষ্টি। আবার ছোট ছোট দুটো শিশু, স্ত্রী, মা-বাবা রেখে পুড়ে মারা গেছে ট্রাক ড্রাইভার, যে কিনা সন্তান আর পরিবারের মুখে খাবার তুলে দিতে ট্রাকের স্টিয়ারিং ধরে রাস্তায় নেমেছিল। স্বপ্নপোড়া এই গরীব মানুষগুলোর দুঃস্বপ্ন কাটাবে কে? আজ যদি আমাদের বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকতেন; তাহলে নিশ্চিত বলতেন, “আমার গরীব মানুষ আজ বাঁচতে চায়!” হায়! তাকেও তো তার বাংলার মানুষই মেরে ফেলেছে!

৩)
অবাক হয়ে খেয়াল করছি- বিএনপি জোটের ডাকা এই অবরোধে রাস্তায় আজ পর্যন্ত একটা বড় কোন জনসমাগম দূরের কথা, একটা ছোট মিশিল মিটিংও দেখছি না। দেখছি না গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ছোট কোন নমুনাও যা এতদিন ধরে আমরা দেখে আসছি। যা কিছু আছে তার সবকিছুই টিভির টকশোমুখী। যেখানে এক শ্রেণীর সর্বদা সুযোগ সন্ধানী ও ক্ষমতার উচ্ছিষ্টভোজীরা গলা ফাটিয়ে বা ইনিয়ে বিনিয়ে এর ছাপাই গাচ্ছে, “সরকার বিএনপিকে রাস্তায় নামতে দিচ্ছেনা তাই তারা রাস্তায় নেই”! যদি তাদের কথা সত্যও ধরি, তাহলে বলতে হয়- পৃথিবীতে কবে কোন সরকার তাকে ক্ষমতাচ্যুতকারীদের বিনা বাঁধায় বা সেধে আন্দোলন করতে দিয়েছে? তারপরেও আন্দোলন হয়; এর নমুনা এই ভূমিতেই অসংখ্য আছে।

পূর্বের লেখাঃ অবরোধীয় অবসরের ছিন্নভাবনা-২

০৭/০২/২০১৫ বিকালঃ ৩.০২