ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ঢাকা সিটি মেয়র নির্বাচন শুরুর আগেই দেখছি, দুই নম্বরি শুরু হয়ে গেছে।

খবরে জানলাম- বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী জনাব আব্দুল আউয়াল মিন্টু’র মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়েছে; ঠিকমত মনোনয়ন পত্র দাখিল করতে না পারার কারণে। কিন্তু তার বড় ছেলে জনাব তাবিথ আউয়াল মিন্টুর মনোনয়ন পত্র বৈধ হয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন থেকে অর্থাৎ একই আসন থেকে।

“বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ব্যবসায়ী আবদুল আউয়াল মিন্টুর মনোনয়নপত্র বাতিল হলেও এ সিটি কর্পোরেশনে তার বড় ছেলে তাবিথ আউয়াল মিন্টুর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো.শাহ আলম জানান, আবদুল আউয়াল মিন্টুর আবেদনে সমর্থনকারী হিসেবে যার নাম দেওয়া হয়েছে তিনি এ সিটি করপোরেশনের ভোটার না হওয়ায় মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে”।

এখন আমি যদি বলি, জনাব মিন্টু’র মনোনয়ন পত্র পূরণের ভুলটা ছিল ইচ্ছাকৃত; তাহলেই আমার দোষ হয়ে যাবানি? কিন্তু জনাব মিন্টুকে যদি কেউ প্রশ্ন করেন, আচ্ছা! আপনারা বাপ-ব্যাটা একই আসন থেকে কেন মনোনয়ন তুলেছিলেন? তাহলেই কিন্তু উত্তর পাবেন! আমি নির্দোষ প্রমাণিত হবো।

আবার আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জনাব আনিসুল হকের নাকি বাড়ি, গাড়ি কিছুই নেই; যা আছে তা সবই স্ত্রী, পুত্র ও কন্যার নামে! অথচ আমরা জানি উনি একজন বড় ব্যবসায়ী! ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতিও ছিলেন।

“তবে স্ত্রী, পুত্র ও কন্যার নামে বাড়ি অ্যাপার্টমেন্ট ও টাকা রয়েছে বলে নির্বাচন কমিশনকে তিনি জানিয়েছেন। মোহাম্মদী গ্রুপসহ ২২ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত ‘ব্যবসায়ী’ আনিসুল হক হলফনামায় যে ৭৫ লাখ ৮২ হাজার টাকা বার্ষিক আয়ের তথ্য দিয়েছেন তার মধ্যে বাড়ি ভাড়া থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা, ব্যবসায় ২৫ লাখ টাকা, শেয়ারে ১ লাখ ৬১ হাজার টাকা, এফডিআর মুনাফাসহ অন্যান্য খাতে ৪৫ লাখ ৮৯ হাজার টাকা আয়ের তথ্য রয়েছে। নিজের নামে অস্থাবর সম্পদ রয়েছে ২১ কোটি ৭৬ লাখ টাকার”।

এখন আমি যদি বলি, উনি এই সম্পত্তিগুলো নিজের নামে না করে স্ত্রী, পুত্র ও কন্যার নামে করেছেন ইচ্ছাকৃত ভাবে? তাহলেই এই অধমের ঠ্যাঙ্গানি খাওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা আছে! কিন্তু কেউ যদি জনাব হককে প্রশ্ন করেন, আচ্ছা আপনার স্ত্রী, পুত্র ও কন্যা’রা কি কামাই করেন? তাহলেই উত্তর পেয়ে যাবেন; আমি নির্দোষ হিসেবে আবারো প্রমাণিত হবো।

যাকগে, আমি এই নির্বাচন নিয়ে আপাতত আগ্রহ হারালাম!

ভাল মানুষ চেয়েছিলাম; আর পেলাম এই >>>

০১/০৪/২০১৫