ক্যাটেগরিঃ জানা-অজানা

গতকাল রাতেই নাসা’র লিংকে খবরটা পড়েছিলাম; আজ আবারও পড়লাম। একদল জ্যোতির্বিজ্ঞানী যারা মহাশূন্যে প্রাণ খোঁজায় অনেকদিন ধরেই নিয়োজিত আছেন। তারা বলেছেন, আগামী দশ বছরের মধ্যেই তারা মহাশূন্যের কোন না কোন গ্রহ-উপগ্রহতে এলিয়েন খুঁজে পাবেনই। অর্থাৎ প্রাণ খুঁজে পাবেন তাঁরা। এই বিজ্ঞানীরা কিন্তু খুবই আত্মবিশ্বাসী এই খুঁজে পাওয়াতে।

Not only does NASA’s chief scientist believe alien life forms likely exist, but she said the space agency knows where to look and could discover signs of extraterrestrial life within the next decade. Speaking on a panel discussion on Tuesday about water in the universe, NASA’s chief scientist Ellen Stofan said she believes the first indications of alien life could come by 2025 — with more concrete evidence of extraterrestrial life coming in 20 to 30 years.

“We know where to look. We know how to look,” she said. “In most cases we have the technology, and we’re on a path to implementing it, so I think we’re definitely on the road.”
While Stofan predicts mankind is likely not alone in the universe, she said she expects alien life won’t be “little green men.”

“We are talking about little microbes,” she said. Water is one of the necessary elements in NASA’s quest to find habitable planets and life forms beyond Earth. It’s been found in surprising places, including the icy moons of Jupiter and Saturn. By exploring these other worlds, it’s only a matter of time before NASA could strike on evidence proving the existence of alien life.

অবশ্য মহা বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং অনেক আগে থেকেই বলছিলেন যে, আমরাই এই মহাবিশ্বে একমাত্র প্রাণ না! আরও প্রাণ আছে এবং সেই প্রাণ যে শুধু অক্সিজেন নিয়ে বাঁচবে বা পায়ে হাঁটবে তা না; সেই প্রাণ হাইড্রোজেনও গ্রহণ করতে পারে, বেলুনের মত উড়ে উড়ে চলতেও পারে। তিনি আরও একটা কথা বলেছিলেন, মানব সভ্যতার উচিত হবে না এলিয়েনদের সাথে যোগাযোগ করা বা তাদের খুঁজে বের করা কারণ সেটা আমাদের পক্ষে না যাওয়ার সম্ভবনাই বেশী।

তারপরেও মানুষ থেমে থাকে না; বিজ্ঞান থেমে থাকে না!

হোপ ফর দ্যা বেষ্ট!

০৯/০৪/২০১৫

সুত্রঃ নাসা ও সিবিসি নিউজ

ভিডিওঃ ইউটিউব