ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 
Capture

দেখুনতো ছবিতে থাকা বোর্ডের লেখাটা পড়তে পারেন কিনা? পড়তে পারলেই একটা লজেঞ্জ ফ্রি পাবেন!

ঢাকা শহরে চক্কর দিলেই দেখা যায় এই বানান ভুলের মহোৎসব! আর এর ব্যাপকতা দেখা যায় সরকারি কাজে ব্যবহার করার জন্য যেসব সাইন বোর্ড লাগানো হয় তাতে। বিশেষ করে ঢাকা শহরের মেট্রোপলিটন পুলিশের বা ট্র্যাফিক পুলিশের লেখা সাইনবোর্ডগুলোতে বাংলা বানানে ভুল আছেই। যদি দেখেন একটা বোর্ডে তিনটা শব্দ আছে তাহলে দেখতে পাবেন একটা বানানে ভুল আছেই। না থেকেই পারে না। গ্যারান্টি!

যেতে যেতে দেখলাম, কুড়িল ফ্লাইওভারের নীচের ৩০০ ফুট চওড়া রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের যতগুলো এই ধরণের সতর্কীকরণ বোর্ড আছে; তার সবগুলোতেই বানান ভুল আছে।

একটাতে ‘মোড়’ বানানটা লেখা আছে ‘মোর’ আর একটাতেও দেখেছিলাম আরও বড় বানান ভুল। ভাগ্যিস ওগুলো ঝড়ে ভেঙে গেছে! না হলে একটা সুন্দর ছবি পোষ্ট হত। যদিও সেগুলো উল্টো করে অন্য জায়গায় পোঁতা আছে। কেউ খুঁজলেই পাবেন।

আমার মনে কয়েকটা প্রশ্ন-

১) এই কাজের কার্যাদেশ পায় কারা?
২) এই বোর্ডের বা লেখার ডিজাইন করে কারা? কোন গ্রাফিক ডিজাইনার?
৩) যারা চেক করে এগুলোতে এপ্রুভাল দেয়; তারা কারা?
৪) যারা এই এপ্রুভড ডিজাইন নিয়ে প্রিন্টিং মেশিন থেকে প্রিন্ট করে তারা কারা? সেই প্রিন্টার কারা?
৫) যারা এগুলো বহন করে এনে জায়গামত বসায় ও সুপারভাইজেশন করে তারা কারা?
৬) আর সবশেষে যারা পড়ে আর দেখে চোখ বুঝে এই ভুল বানানগুলো সহ্য করে তারা কি আমরা?

অবশ্যই >>>

মিলিয়ন ডলারের প্রশ্নঃ ওনারা আসলে কী লিখতে চেয়েছিলেন?

আচ্ছা! আমি নিজেই ট্রাই করি না কেন? দেখিনা তারা আসলেই কী লিখতে চেয়েছিলেন?

১) গাড়ী থামানো নিষেধ।
২) গাড়ী থামানো নিষেধ না।
৩) গাড়ী থামালে জরিমানা।
৪) গাড়ী না থামালে জরিমানা।
৫) গাড়ী থামানো খারাপ।
৬) গাড়ী থামানো ভাল।
৭) গাড়ী থামানো নিষেধ; কে কইছে?
৮) গাড়ী থামান আর নাই থামান; লজেঞ্চ খাওয়ান।
৯) গাড়ী থামালেও ভাল; না থামালেও ভাল।
১০) গাড়ী নিয়ে মস্করা করেন?

হাড্ডি চুরাচুরা কইরা দিমু >>>

১৬/০৪/২০১৫