ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

আন্তর্জাতিক দু-দুটো রেটিং দেখে আমি রীতিমত উচ্ছেসিত! একটাতে দেখা যাচ্ছে আর্থিক মূল্যায়নে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে ৪৪ তম উন্নত দেশ; আর একটাতে দেখা যাচ্ছে ৩৩ তম দেশ! কাতার, পর্তুগাল নামক দেশগুলোও এই তালিকাতে আমাদের চেয়ে নিচে অবস্থান করছে! অর্থাৎ আমরা এখন এদের চেয়ে অনেক ভাল অবস্থানে আছি!

বিশ্বব্যাংক এবং আইএমএফ এর তথ্যমতে, বিশ্বের অর্থনৈতিক সমীক্ষায় মাত্র দুই বছরে ১৪ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। পরম মানের দিক থেকে আমরা এখন বিশ্বের ৪৪তম বৃহৎ অর্থনৈতিক শক্তি, কিন্তু সমতা ভিত্তিতে ক্রয় ক্ষমতার বিচারে সে অবস্থান ৩৩তম। এত অল্প সময়ে খুব কম দেশই এই অগ্রগতি করতে পেরেছে।”

সবচেয়ে যেটা আমাকে অভিভূত করছে সেটা হলো- মাত্র ২ বছরে আমরা এগিয়েছি ১৪ ধাপ! যা এককথায় অনন্য! এর জন্য আমাদের বর্তমান সরকারকে অবশ্যই কৃতিত্ব দিতে হবে! যদিও আমরা জানি- গত দুবছর দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতা আমাদের অর্থনীতিকে কতটুকু ভুগিয়েছে! তারপরেই এই অর্জন এক কথায় অনন্য; বিশ্বের কাছে নজিরবিহীন!

ধারনা করি- আগামী ৩-৪ বছরের মধ্যে এই গতি আরও বেগবান হবে কারণ আমাদের অর্থনীতির ভিত ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গেছে- যা আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নকে আরও বেগবান করার জন্য যথেষ্ট। বছরে ৬ মাত্রার প্রবৃদ্ধি হয়ে যাবে ৮ থেকে ৯ মাত্রার; যদি আমরা দুর্নীতি কমাতে পারি! আর দুর্নীতি কমাতে সবার আগে চাই সরকারের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা সকল দুর্নীতিগ্রস্থ হাতা নেতা, পাতি নেতা, খ্যাতা নেতাদের তাদের পরিবারসহ সমূলে উৎপাটন; দরকার সরকারের আশেপাশে থাকা হাইব্রিড চামচাদের জোড়া পায়ের লাথি মারা! প্রয়োজনে ফুটবলের মত দুইদিক থেকে ‘চাপ কিক’ মেরে বের করা হোক! আমরা মাইন্ড করবো না; তারপরেও বের করা হোক এদের! চাই আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বিষয়ে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করুন!

তাই চাই- সরকার তার অর্থনৈতিক ও বিনিয়োগ কর্মকাণ্ড চালু রাখার পাশাপাশি এখনই দুর্নীতি দমন করুক! প্রয়োজনে ক্রাশ প্রোগ্রামের মাধ্যমে দুর্নীতি বিরোধী অভিযান চালানো হোক! বাস্তবিক অর্থে আমি, দুর্নীতি দমনে ক্রাশ প্রোগ্রাম চাই কারণ আমরা আরও উন্নয়ন চাই!

চাই আমাদের দেশের ভিসার জন্য আমেরিকানরা দিনের পর দিন লাইনে দাঁড়িয়ে থাকুক! কিসিঞ্জারের “কিসিঞ্জারী ব্যঙ্গ” থেকে যেহেতু আমরা এতদূর আসতে পেরেছি; সেহেতু আমেরিকানদেরও আমরা লাইনে দাড় করাতে পারবো! জাস্ট একটুখানি মাথা ঠাণ্ডা করে এক থাকতে হবে আমাদের আর দুর্নীতির মূল উৎপাটন করতে হবে! কেউ আমাদের আটকাতে পারবে না!

আমাদের লক্ষ্য ঠিক থাকলে একদিন পারবোই আমরা!

১০/০৬/২০১৫