ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

যারা মনে করেন এই ডিজিটাল জমানায় বাস করেও চিন্তা করে যে, মেট্রোরেল ঢাবি’র রাস্তাও উপর দিয়ে গেলে তার শব্দে তাদের পড়ালেখার ক্ষতি হবে, তারা হলো ‘মেট্রোক্ষ্যাত’।

আপনাদের কিছু বলার আছে?

metro

 

বিঃ দ্রঃ আমার ১৫০০ প্লাস কমেন্টের মধ্যে এটাই সেরা কমেন্ট! ক্ষ্যাত বিষয়ক পোস্টদাতাকে ধন্যবাদ! সময়ের সেরা চিন্তা বের করে নিয়ে আসার জন্য!

এবার আসুন আজকের তোলা কুয়ালালামপুরের কেএল সেন্টারের মেট্রোষ্টেশনের ছবি দেখি! কিন্তু এই মেট্রোক্ষ্যাতগুলো এই ছবি দেখে বলবে স্টিল ছবিতে তো আর শব্দ ওঠে না তাই শব্দ আছেই!

তারজন্য ভিডিও তুলেছি –

লিঙ্ক

খেয়াল করুন একটা বাচ্চা ছেলের গলার স্বরও মেট্রোর শব্দের চেয়ে বেশী!

মেট্রো এত দ্রুত চলে যে আমি ভিডিও অন করতে করতেই তা নাই হয়ে যায়! আরও ভাল ভিডিও দেওয়ার আশা রাখি!

ততক্ষণ পর্যন্ত সাথেই থাকুন!