ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

খবরে পড়লাম, অগ্রণী ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মিজানুর রহমান খানকে গ্রেফতার করা হয়েছে নামে-বেনামে কয়েকশত কোটি টাকা ঋণ প্রদান করার জন্য! অর্থাৎ মেরে দেওয়ার জন্য।

সত্যি বলতে কি, দেশের অনেক অনেক মন খারাপ করা খবরের মধ্যে শুধুমাত্র এই একটাই “স্বল্প মাত্রার” ভাল খবর পেলাম।

আশা করি- দুদক তাকে আদর করে দুধ-ভাত না খাইয়ে; লাল সূতা, নীল সূতার বের করার সাথে সাথে লুটের টাকাগুলোও উদ্ধার করবে। নইলে কিন্তু “যে লাউ সেই কদু” – কাহিনীর পুনরাবৃত্তি হবে!

শেষবেলায় যেন আবার না শুনি, উনিও বেসিক ব্যাংকের এমডি’র মত দাঁও মেরে পগার পার হয়েছেন? অবশ্য ওনাকে একা গ্রেফতার করে তেমন কোন লাভ হবে না! কারণ টাকা মেরে তিনি তার বংশধরদের ভবিষ্যৎ ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করেছেন। এখন দুদক যদি টাকা উদ্ধার করতে চায়- তাহলে সেইসব বংশধরদেরও ধরতে হবে, যদি না তারা ইতিমধ্যেই বিদেশ চলে যেয়ে থাকে!

এবার কিন্তু টাকা উদ্ধার না হলে মাইন্ড খাবো!

অফটপিকঃ আমরা মাইন্ড খাওয়ার কে?

৩০/০৬/২০১৬