ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

আমরা হলাম আদর্শলিপি’র প্রজন্ম।

যখই কোন এক্সট্রিম কিছু সামনে আসে তখনই মনে পড়ে যায়-

সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি
সারাদিন আমি যেন ভালভাবে চলি।
আদেশ করেন যাহা, মোর গুরুজনে
আমি যেন সেই কাজ করি ভাল মনে।

বা মনে পড়ে যায়-

সদা সত্য কথা বলিবে, মিথ্যা বলা মহাপাপ।

আরও মনে পড়ে-

জীবে দয়া করে যেইজন
সেইজন সেবিছে ঈশ্বর।

যার কারণে কোন কিছুই আমরা উগ্রভাবে ভাবতে পারিনা! খারাপ ভাবনাগুলো আসার সাথে সাথেই ছোট্টবেলায় শেখা এই শিক্ষাগুলো সেগুলোকে ব্লক করে দেয়; এন্টি ভাইরাস হিসেবে কাজ করে। ফলে মাথার হার্ডডিস্ক ভাইরাস মুক্ত থাকে।

আর এখনকার প্রজন্ম শিখছে-

অ তে আজগরটা আসছে তেড়ে
আ তে আমটা আমি খাবো পেড়ে।

বা শিখছে-

গ তে গান শুনো না!

আরও শিখছে-

নানারঙের পিপড়ার গল্প।

এই যদি হয় অবস্থা, তাহলে এই প্রজন্মের ভয়ে আমরা ঘরে লুকাবো না তো ওরা লুকাবে? সবে তো শুরু? ওদের দোষ দিয়ে কোন লাভ হবে না। নাটেরগুরু কিন্তু আমরাই! যা শিখেয়েছি; ওরা তাই শিখেছে।

তাই বলছি কি-

আদর্শলিপিকে ভোট দিন; সামনে আসবে শুভদিন।

নইলে বর্তমানের সাথে সাথে ভবিষ্যৎও ঝরঝরে >>>

২২/০৭/২০১৬