ক্যাটেগরিঃ ভিডিও

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে, মঙ্গলবাড়ীর ভীমের পান্টি প্রাচীন বাংলার আরেক রাজধানীর অস্তিত্ত্ব ঘোষনা করছে। কথিত এই পান্টি মুলত একটি স্মৃতি স্তম্ভ। এই স্তম্ভের প্রতিষ্ঠাতা ভট্রগুরব মিশ্র সত্মম্ভলিপিতে উল্লেখ করেছেন যে, এটি মন্ত্রীভবনের একাংশ। বিষ্ণুর উদ্যোগে (৮৩৬-৯২০খ্রিঃ) নির্মিত স্তম্ভটি পাল রাজা নারায়ন পালের সময় নির্মিত।
পৌরানিক কাহিনী অবলম্বনে মানুষের ধারণা জন্মে যে, দেবদূত ভীম মর্ত্যলোকের ভূমি কর্ষনের দায়িত্ব পেয়েছিলেন। গভীর রজনীতে চাষ কার্য শেষে মঙ্গলবাড়ী এসে ভোর হয়। তিনি দ্রুত লোক চক্ষুর অন্তরালে স্বর্গে গমনকালে তাঁর হাতে থাকা পান্টিটি আপন ভারে মাটিতে পুঁতে যায়।

এটি নওগাঁ জেলাধীন ধামইরহাট উপজেলার মঙ্গলবাড়ী এলাকায় এটির অবস্থান।  নওগাঁ জেলা সদর হতে দূরত্ব ৬৭ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়।

 

সুমিত বণিক, উন্নয়নকর্মী।

ধামইরহাট, নওগাঁ থেকে