ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

14517513_1762254537375511_1109959608040887690_n

সিলেটে খাদিজা আক্তার নার্গিসকে নৃশংভাবে কোপাচ্ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা বদরুল, দিনে দুপুরে তখন লোকজনের উপস্থিতিও ছিলো আশপাশে। একজন মানুষকে কুপিয়ে জখম করা হচ্ছে দেখেও এগিয়ে যায়নি, যে কয়েকজন সাহস করে এগিয়ে ছিলেন তাদেরও তাড়া তকে বদরুল।  দূর থেকে দাঁড়িয়ে ভিডিও ধারণে ব্যস্ত ছিলো কয়েকজন। অন্যরা ছুটে পালিয়েছে ।

এর মধ্যে একজন ছিলেন ব্যতিক্রম। চাপাতির কোপে ক্ষতবিক্ষত ‘মানবতা’ কে যেন উদ্ধারে এগিয়ে এলেন তিনি। তুলে নিলেন নিজের কোলে। নার্গিসের রক্তে রঞ্জিত হয়ে গেলো তার শরীর। উল্টো পথে হেঁটে সেদিন অনেকেই পালিয়ে গেলেন ভয়ে। আর তাদের চোখে আঙুল দিয়ে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ইমরান কবির নামের সিলেটের টিলাগড়ের বাসিন্দা সেই তরুণ। শুধু তাই নয়, নার্গিসকে বাঁচাতে ওষুধ কেনা থেকে শুরু করে নিজের রক্তও দিয়েছেন তিনি।

untitledpy

বৃহস্পতিবারে সে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়…

 

 

উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার অপক্ষায়।  পরদিন ইমরান নিজেই ফেসবুকে স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘হে আল্লাহ, তুমি চাইলেই সব পার। তোমার কাছে একটাই দাবি, আপুটাকে তুমি বাঁচিয়ে দাও।’ এরপর গত তিনদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলছেন ইমরান। ইমরান দাবি করেন, আমি কোনো রাজনীতি করি না। মানবিক এ শিক্ষা পরিবার থেকেই পেয়েছি। আপুর জীবন রক্ষা হলেই কেবলমাত্র মানসিক শান্তি পাবো।

ভিডিও সৌজন্যে: যমুনা টিভি।

jugapath@gmail.com 

http://jugapath.com