ক্যাটেগরিঃ সেলুলয়েড

স্টার আর আমজনতা রা হইলো আলগা গ্রহের প্রানী। স্টাররা বছর ফি বছরে একটা দুইটা ইন্টারভিউ দিবে পত্রিকায়, আমরা ফ্যান রা দেখে শিহরিত হবো। আজকের সকালের মত কুয়াশা না থাকলেও কেঁপে যাবো। এটাই নিয়ম,আর এতেই সব ঠিক ছিলো।

স্টারেরা নিজেদের ঠিক কি কারনে টেনে নামাইতে উঠে পড়ে লাগছেন বুঝি না। শুধু যখন দেখি তারাও আমার মত সকাল বিকাল রাতে সেলফি আপলোড করেন, তাদের পোস্টে আমজনতা যেয়ে গালিগালাজ করার সুযোগ পায়, তখন আমজনতা হয়েও আমার করুণা লাগে খুব।

স্টাররা রাইতের আকাশের তারা, তারা থাকবে আকাশে,সবার হাতের নাগালের বাইরে,তারা যদি নেমে পরে মানুষের কাতারে তাইলে আর স্টার থাকলো কই? তাদের মহান বলা যাইতে পারে, বলবে ভেবে ফেলছে অনেকে এতক্ষনে।ধুরো ভাই, তাদের মহান হইতে কইছে কে, সে বাসার বারান্দায় দাড়ায়া হাত নাড়বে, পাবলিক নিচ থেকে চিল্লাবে, সেই চিল্লানিতে তার সকাল সকাল ঘুম ভাংবে, এখন পাবলিকের চিল্লানীর কাতারে যদি সকাল সকাল সেই নেমে পড়ে তাইলে তারে স্টার কইতে আপত্তি নাই, কিন্তু ভাবতে ব্যাপক আপত্তি আছে আমার।
এই যায়গাটা আমাদের। ব্লগার, ওয়েব মাস্টার,ইন্টারনেট একটিভিস্টদের। আপনারে এইখানে আইতে কইছে কে?

আইবেন, আপনার পোস্টে পাবলিকের আনাগোনা দেইখা আমি ই লজ্জা পাবো এটা কেমন কথা স্যার! আপনারাও যদি পাতাখোরদের মত ফেইসবুক লাইক দিয়া নিজেরে চিন্তা করেন, তাইলে তো জয়া আহসানের সাথে নায়লা নাইমের যুদ্ধে কে জিতবে, জানা কথা।
সময় ফুরায় যায় নাই, মান সম্মান নিয়া নিজেদের আকাশে যাইয়া তারা হয়ে আমাদের মুগ্ধ করেন, That Suits You.