ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

ইংরেজদের শাসন ব্যাবস্থা দেখার দুর্ভাগ্য আমার হয়নি। সেই দুর্ভাগ্য নিয়ে আমার বাপ দাদারা জন্মেছিলেন। তবে আমি বা আমরাও খুব ভাগ্যবান নই। কারণ এমন এমন একটা পুঁজিবাদতন্ত্রের প্রজন্ম আমি। আমাদের সবকিছুই নির্ধারিত হয় দাদাদের তুড়িতে । আপনার দৈনন্দিন অনেক অভ্যাসও কিন্তু তাদের তৈরি। তারা আপনার বিনোদনের সব মাধ্যমগুলোই নিয়ন্ত্রণ করে। এখন ব্রিটিশ শাসকদের সেই সময়টাকে অনুভব করেতে একটুও কষ্ট হয় না। এদেশ থেকে বহু আগেই ব্রিটিশ বেনিয়ারা চলে গেছে কিন্তু পক্ষান্তরে তাদের উত্তরসূরীরা এখনও আমাদের শাষক । তারা আমাদের পায়ে এক অদৃশ্য শেকল বেঁধে দিয়ে গেছে। আজও আমরা স্বাধীন হতে পারিনি। প্রতিদিন শুধু অবাক হয়ে থাকি, এখনও কিভাবে আমাদের জীবন যাপনের গতিধারাটা তাদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। নিয়ন্ত্রন হয় আমাদের খাদ্যাভ্যাস, পোশাক-আশাক সবকিছুই। জমি আমার কিন্তু নীল চাষ করতে বাধ্য করবে ইংরেজরা ।এখনও এটা বদলায়নি।

ফোন কোম্পানীগুলো আপনার ফোনে একটা সার্ভিস চালু করে দেবে এবং অটো টাকা কেটে নেবে, আপনি কার কাছে বিচার চাইবেন? এই অঅিভিযোগ কে নেবে? আপনার স্বাধীন দেশের কোটি কোটি নাগরিকের কাছ থেকে এভাবে নানা দুনম্বরীতে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এরা। কিন্তু অভিযোগ করার কোন উপায় নেই । অনেকের কাছে বিষয়টা তুচ্ছ । এই এক দুই টাকার জন্য ব্লগও লিখতে হয়। কিন্তু এটা এক দুই টাকার মামলা নয়। এটা হাজার কোটি টাকার খেলা। প্রতিদিন প্রায় ৮-১০ কোটি গ্রাহকের সাথেই এমনটা হচ্ছে। সরকার, মিডিয়াসহ সবাই বোধয় এদের কাছে জিম্মি, বিষয়টা মনে হয় এমনই। তাহলে আমরা স্বধীনত এই একথাটা কিভাবে বলবো । মন্ত্রী আমলরা যেসব কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে থাকে সেসব সমস্যাতো একজন সাধারণ জনগন কিংবা সাধারণ সাংবাদিকের পক্ষেও সমাধাণ করা সম্ভব না । আর এসব আর সেসবের অভিযোগ নিয়ে কাস্টমার কেয়ারে ফোন করা হলে আপনাকে কত রকম বাহানার কথা শোনাবে তার ইয়ত্তা নেই। প্রথমেই আপনাকে একজন সুন্দরী রমণী বলবে, আপনি নিউজের অ্যাপে ঢূকেছেন তাই এই অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই চালু করা হয়েছে, আপনি গানের অ্যাপে ঢুকেছেন তাই গানটি অটো চালু হয়েছে । এই ভদ্র মহিলা আপনার কোন কাজে আসবে না। যেই অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হয়েছে সেটি বন্ধ করতে আপনাকে অনেক কাঠ খড় পুড়াতে হবে। টাকা কেটে নেবার অথরিটি আপনাকে আর কোন সমাধান দেবে না । আসলে সবই টাকা কামানোর ধান্ধা। ওরা ভাল করেই জানে এদেশের সরকারের বিশেষ মহলকে ন আনা ছ আনা ধরিয়ে দিতে পারলে এরাই এদের জনগনকে বাঁশ ধরিয়ে দেবে। আমরা আছি বাঁশের মধ্যে। কোন গ্রাহকই ফোন কোম্পানির সেবা নিয়ে সন্তুষ্ট না ।