ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

ভাবছি আর ভাবছি। মানুষের এ কেমন জীবন যাত্রা। কয়দিনে বা এ দুনিয়ায় থাকি। অসুখ বিসুখতো আছে। সংসারের যাতনার কলতো ঘারে চাপানো। আত্মিয় স্বজনের চাওয়া-পাওয়া তো আছেই। পাশে আছে সমাজ তার উপর দেশ মাতা।

সব ভেবে কিছু করতে চাই। কিছু করা হয় কোথায়? থেমে যাই, কোন সময় অবশ শরীরটা বিছনায় ফেলিয়ে রাখি। সে শরীর কখন যে বোধ শক্তি হারিয়ে ফেলে তা নিজেও জানি না। এভাবে যায় দিন, ফিরে আসে আবার। প্রকৃতি চলে সঠিক ভাবে আমরা চলি অনিয়মে। এটাই আমাদের যন্ত্রনার নিয়তি। হিংসা আমাদের কুরে কুরে খাচ্ছে। আমরা চেয়ে আছি কোন অলৌকিক পরির্তনের। আমরা যদি একটা আলাদ্দিনের চেরাগ পেতাম। আহা! সব ঠিক করতে পারতাম। ভালো পথের উৎসাহিত কয়জনের করি আর নিজেরাও তাতে নিয়োজিত থাকি। আমরা এটা কী কখনো নিজের শান্ত মাথায় একবারের জন্য নিরবে ভাবি। মনে হয় না। তাহলে মানুষ নির্যাতনের এ হোলি খেলা থামবে কেন? রক্তের খেলা থামবে কেন?

মানুষ মরবে তবে বিভিন্ন নামে, কখনো ব্লগার, চোর বাটপার, ছিনতাই কারি, ডাকাত, আওয়ামী লীগ, বি,এন,পি, শিবির বা সাধারন মানুষ। এরা তো মানুষ না। এরা মরলে এর বিরোধীরা হয়তো তৃপ্তি পায় আমি পাই না । যারা এ ভাবে মরে তাদের জন্য আমরা কি করি । তাদেরকে অন্তরের দরদ দিয়ে একবার বলতে পেরেছি তোমরা আমার ভাই । তাদের কোন কাজে ভুল থাকলে আমরা কি তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি । না। না। একবারও না ।তাহলে আমাদের তাদেরকে ধিক্কার দেবার অধিকার আমাদের নেই। বলুনতো মানবতার পথে, সব মানুষের জন্য আমরা কয়জন আছি। ভাগ আর লোভ আমাদের দয়া মায়া কেড়ে নিয়ে গেছে কোথাও। বাকি নৈতিকতাও উধাও।

হায়রে পৃখিবীর সেরা ধর্ম ইসলাম তোমার ভাগের শেষ নাই । আপন আপন চাহিদা মিটাচ্ছে ভাগ বাটোয়ারা করে । শুধু বাংলার জমিনে শতাধিক বিভিক্ত হয়ে পরেছে । দল উপদলের শেষ নেই । যে মানবতার ধর্ম এক সময় সারা দুনিয়ায় শোষণ বঞ্চনার অবসান করেছে অনাচারকে দুরীভূত করেছে । সেই ধর্ম আজ সারা দুনিয়ায় বিভক্ত হয়ে গেছে। ১৪০০ সালের মহানবী (সাঃ) যে জীবন যাপন করছেন আজ তা আধূনিক এর পরে আধূনিক শেষে থাকবে অতি আধূনিক হিসাবে তাতে আমার কোন সন্দেহ নাই । আপনাদের সন্দেহ আছে কি না জানি না । তবে সন্দেহ থাকলে আপনারা প্রতিটি বিষয় পরীক্ষা করতে পারেন । আমতা আমতা করে নয় ভীতরে ডুকে অত্যন্ত বাস্তবতার সাথে। আসলে ইসলামের পরিপূর্ণ কাঠামোর মাঝে আমরা সবাই এক সাথে থাকলে হয়তো আমাদের এই পৃথিবী অন্য রকম হত। আর অন্যরা তাদের নিজের ধর্মের উপর প্রতি্ষ্ঠিত থাকত তাহলে কোন মানুষেই এ ভাবে জীবন দিতে হতো না, অপমানিত ও অবহেলা হত না। মায়া মমতার অপূর্ব পৃথিবী আমরা হাতের কাছেই পেতাম । আমাদের সমাজ ব্যবস্থা যা দেখছি তা তো ইসলাম সমর্থন করে না, করে না অন্য ধর্মেও। সমাজে এখন ধর্মীয় অনুশাসন খুব দরকার ।

আগুনে মানুষ পোড়ানো, বন্দুকের নলায় মানুষের তাজা জীবন, ঘুষ, দুর্নীতি, সুদ, সন্ত্রসী হামলা করে মানুষ হত্যা, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত, ব্যভিচার, মানুষকে গালিগালাজ ও অন্যের অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাহীনতা এ সব ত্যাগ করতে পারলে আজ মনে হয় আমরা মানুষকে মানুষ হিসাবে দেখতে পারতাম । হায়রে আমার অভাগা মাতৃভূমি তোমার সন্তান আজ নিখোঁজ হয়ে যায় না ফেরার দেশে তোমার কোল শুণ্য করে । দেখবার কেউ নেই । আমি আহবান জানাই সব ধর্মের অন্যগোত্রকে, যারা মানুষ হিসেবে নিজেদেরকে পরিচয় দিতে ভালো বাসেন, আজ তাদেরই দরকার এই মাতৃভূমির জন্য। এই অবহেলিত মানুষদের জন্য ।এখন বাকি টা আপনার বিষয় ভাগ করবেন না সবাইকে ভালোবাসবেন।