৮ ফেব্রুয়ারি কি কোন বিশেষ চমক অপেক্ষা করছে?

/

জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া জেলে যাচ্ছেন এটা এ দেশের সবগুলো রাজনৈতিক দল এমনকি খোদ বেগম জিয়াও ধরেই নিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে। যার পেছনে রয়েছে যথেষ্ট কারণও। যেমন, এত কথা যে এতিমখানা নিয়ে তার তো কোন অস্তিত্বই নেই, এমনকি কখনো ছিলও না! অথচ রাষ্ট্রীয় এতিম তহবিল থেকে রাষ্ট্রের অর্থ সেই অদৃশ্য এতিমখানায় বেআইনিভাবে দেয়া… Read more »

এবারো কি খালেদা জিয়ার ট্রেন ফেল?

/

সবার নিশ্চয়ই মনে আছে, ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনী ট্রেন ফেল করেছিলেন আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেজা জিয়া। নির্বাচনী ট্রেন ধরার জন্যে সেইসময় তিনি অনেক চেষ্টা তদবীর করেছিলেন, অনেক দেশি-বিদেশি দেন দরবার হয়েছিলো, তৎকালীন প্রধানমন্তী নিজে উনাকে টেলিফোন করে আলোচনার আহবান জানিয়েছিলেন কিন্তু সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে দেশনেত্রী ইচ্ছাকৃত ভাবেই নির্বাচনী ট্রেন ফেল করেছিলেন। সংবিধানের… Read more »

ক্ষতি কি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে?

/

বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার দাবি, তার সরকার দেশের ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। দেশের উন্নয়ন করা এটাতো খুব ভাল কথা। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলব, আপনি যেহেতু দেশের এতো উন্নয়ন করেছেন তাহলে তো জনগণ আপনাকেই ভোট দিবে! ক্ষতি কি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে? দেশের উন্নয়ন হয়েছে, এটা ভুয়া কথা। যদি আওয়ামী লীগ… Read more »

গণতন্ত্র তুমি কার?

/

“সখি তুমি কার” নামে ত্রিভুজ প্রেমের একটা সিনেমা ছিল। নায়ক দু’জন কিন্তু নায়িকা একজন, এক নায়িকাকে নিয়ে দুজনের টানাটানি। এরকম ত্রিভুজ প্রেমের আরো অনেক সিনেমা আছে, যেখানে এক নায়িকাকে নিয়ে দুজনের টানাপড়েন। ঠিক সেরকই অবস্থা বর্তমান রাজনীতিতে। এখানে নায়িকার চরিত্রে আছে গণতন্ত্র অার নায়কের চরিত্রে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি জোট-মহাজোট। ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি। দশম জাতীয়… Read more »

আমাদের রাজনৈতিক শিষ্টাচার বনাম ক্ষমতার বড়াই

/

বৃটিশ আমলের আগে আমরা রাজাদের অধীনে পরিচালিত হতাম। মুঘলেরা চৌধুরীদের মাধ্যমে খাজনা নির্ধারণ করতেন আর আমরা খাজনা দিতাম। মূলত প্রত্যক্ষ খাজনার প্রচলন ছিলো। প্রত্যক্ষ শাসন আর প্রত্যক্ষ নির্যাতন ছিলো। একসময় বৃটিশ এলো আর আমাদের গণতন্ত্র (পড়ুন ভোট দেয়া) শেখালো। অথচ, বাংলার শেষ স্বাধীন নবাবকে যেদিন ইংরেজরা গ্রেফতার করে নিয়ে যায় সেদিনোও রাজায় রাজায় যুদ্ধ বলে… Read more »

পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে চলবেন না নিচ দিয়ে?

/

বাংলাদেশের রাজনীতির রঙ্গমঞ্চে বারংবার কৌতুকের জন্ম দেয়া এক ‘রাজনীতিবিদে’র সর্বশেষ ‘বচন’ অতীতের কিছু কাহিনীকে আবার মনে করিয়ে দিলো। ১৯৯৭ সালে আওয়ামী লীগ সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের দাঙ্গা বন্ধ করতে শান্তিচুক্তি করে। এতে ঐ অঞ্চলে দুই দশকের বেশি সময় ধরে চলতে থাকা হানাহানি-খুনোখুনি থেমে যায়। খালেদা তখন বলেছিলেন, এ চুক্তির ফলে ফেনী পর্যন্ত নাকি ভারত হয়ে যাবে।… Read more »

যে কারণে আলোচিত ৫ জানুয়ারি

/

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন। টানা দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসে আওয়ামী লীগ। তবে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে না করায় ওই সময়ের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি এ নির্বাচন বর্জন করেছিল। তবে নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের ১২৭ জনসহ ১৫৩ জন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়া অন্যদের মধ্যে ২০ জন জাতীয়… Read more »

যে সমীকরণটা আমরা কখনোই মেলাতে পারি না

/

ছবিঃ গড়াই নিউজ গত ১৫ নভেম্বর ‘বিএনপির প্রার্থী দেখে মনোনয়ন দেবে আওয়ামী লীগ’ শিরোনামে লিড নিউজ করেছে বাংলাদেশ প্রতিদিন। নিবন্ধটির একটি জায়গায় লেখা হয়েছে “আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা বলছেন, নেতা-কর্মীদের কাছে অগ্রহণযোগ্য, দলে গ্রুপিং সৃষ্টিকারী, বিনা ভোটে জয়ী হয়ে এলাকার সঙ্গে সম্পর্ক না রাখা, টিআর-কাবিখা বিক্রয়কারী, নিয়োগ ও টেন্ডার বাণিজ্যে জড়িত এমপিরা মনোনয়ন পাবেন না।… Read more »

হেরে যাওয়া চলবে না

/

আগে আমরা প্রতিদিন শুনতাম প্রতিমুহুর্তে সন্তান জন্ম নিচ্ছে, সন্তান জন্ম নেবার হার ছিলো প্রায় তিন চার। সেই সন্তান জন্মের হারকে কমানোর জন্য সারা পৃথিবী বাংলাদেশকে সাহায্য দিতে শুরু করেছিলো সেই ষাটের দশকে। নানা রকম বিজ্ঞাপন, ঔষধ, কনডম, ইঞ্জেকশন, অপারেশন পদ্ধতি আর বিভিন্ন লোকবল নিয়োগ দিয়ে এই সন্তান উৎপাদন হার কিছুটা হলেও কমিয়ে আনা হয়েছে। সেই সময়… Read more »

আওয়ামী লীগের অগস্থ্যযাত্রা

/

মাসখানেক আগে, আওয়ামী লীগের অগস্থ্যযাত্রা নিয়ে একটা লেখা অর্ধেক লিখেও শেষ করিনি, দুটো কারণে- ১)আমরা যে আওয়ামী লীগকে চিনি বা জানি, এই দল সেটা না! ২) শত্রু খুঁজতে থাকা- এই দলটি যে কাউকে শত্রু ভেবে তার উপর চড়াও হতে পারে। প্রথম কারণটির বিষয়ে- আমার তেমন কোন ভাবাবেগ নেই। কারণ আমি ধরেই নিয়েছি, এই দলটি অগস্ত্যযাত্রায়… Read more »