‘বহুদলীয় গণতন্ত্রের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা’ ও রাজনীতির পাঠ

/

দীর্ঘ মুক্তিসংগ্রামের পর অর্জন করা একটি স্বাধীন রাষ্ট্রকে যিনি বা যারা সামরিক ফরমান জারি করে রাষ্ট্রশাসন করলেন, জনগণের উপর কর্তৃত্ত্ব দেখালেন, তিনি বা তারা কীভাবে একটি রাষ্ট্রের নাগরিকদের অধিকার স্বীকার করে নিয়ে গণতন্ত্র দিলেন- তাও আবার বহুদলীয় গণতন্ত্র? মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের সংবিধান ও আইন না মেনে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা নিয়ে নিজে রাষ্ট্রপতি হলেন। তিনি… Read more »

বিদেশি পত্রিকায় পাকদখলদার ও জামায়াতের বুদ্ধিজীবী নিধন গণহত্যা ও নারী ধর্ষণ

/

মুক্তিযুদ্ধে নিরস্ত্র জনগণকে যখন নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে তখন একটি সার্বভৌম দেশের ‘অভ্যন্তরীণ প্রশ্ন’ তুলে জাতিসংঘের হিউম্যান রাইট কমিশন চুপ থেকেছে। এই সুযোগে বাংলাদেশের অসংখ্য নিরীহ বেসামরিক মানুষকে পাকহানাদার বাহিনী নির্বিচারে হত্যা করে চলেছে। পাকিস্তান দখলদার বাহিনীর সহায়তায় গণহত্যা,নারী নির্যাতন, জ্বালাও-পোড়াও ও অন্যান্য অপরাধ করেছে জামায়াত গোষ্ঠীভুক্ত রাজাকার,আলবদর ও আলশামস বাহিনী।প্রমাণ হয়েছে এরা সকলে পাকিস্তান… Read more »

একাত্তরে নিজামীদের যুদ্ধাপরাধ ও বিচার বানচালের পাকিস্তানি চক্রান্ত

/

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালিন নয় মাস উস্কানিমূলক বিবৃতি,প্রচারণা চালিয়ে মতিউর রহমান নিজামীরা অপরাধজনক ঘৃণ্য আচরণ বাংলাদেশের মুক্তিকামী জনগণের সাথে করেছে। পাকহানাদাররা ২৫ মার্চ ঢাকা শহরকে আগুনে জ্বালিয়ে ভুতুড়ে নগরীতে পরিণত করেছে,গণহত্যা চালিয়েছে অথচ এই নৃশংস গণহত্যাকে বৈধতা দিতে নিজামীদের মুখপত্র ‘দৈনিক সংগ্রাম‘ ৮মে তারিখের সংখ্যায় বলে- শেখ মুজিব ২৬মার্চ সশস্ত্র বিদ্রোহের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলা কায়েমের পরিকল্পনা এঁটেছিলেন।সেনাবাহিনী… Read more »

যে কারনে বিদেশী আইনজীবীরা ট্রাইবুনালে লড়তে পারছেন না

/

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালের ক্ষেত্রে বিদেশী আইনজীবিরা নাকি বাংলাদেশের কোর্টে মামলা লড়তে পারছেন না, এবং তাদের সে সুযোগ নাকি দেয়া হচ্ছে না। এবং এই আইনজীবিদের লড়তে দেয়া হলে নাকি তারা মোটমুটি সব কিছু উল্টিয়ে এবং পালটিয়ে ফেলত বলে ইদানীং শোনা যাচ্ছে জামাত ও বি এন পির সমর্থক ও ব্লগারদের কল্যাণে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, যিনি চাইবেন, তিনিই কি… Read more »

আমি কি বদর বাহিনীর একজন কমান্ডারের কথা বলব না?

/

অছিউদ্দীন। বাবা সামসুদ্দীন। পেশায় দর্জি। কেরানীগঞ্জ থানার আব্দুল্লাহপুর(ভাওর ভিটি)বাস স্টেশনের পূব দিকে বাড়ী। পেশায় দর্জি হলেও বাবা ছেলেকে পড়ালেখা করিয়েছিলেন। বিভিন্ন স্থানে লজিং থেকে ডিগ্রী পাশ করেন। ১৯৭০ এর নির্বাচনে খাজা খায়রুদ্দীন হারিকেন মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের দল আওয়ামীলীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে। অছিউদ্দীন তখন খাজা খায়রুদ্দীনের পক্ষে। ভেবেছিল পূর্ব-বাংলার বাঙালিদের স্বায়ত্ত-শাসন রুখে দেবে!… Read more »