অনায়াসে মাসটাশ! (১ম পর্ব)

/

শুধুমাত্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভূক্ত দেশের ৬০টি জেলার ৩৯২টি, মতান্তরে ৪৯৮ বেসরকারী অথবা বা ৫৫৭টি সরকারী-বেসরকারী কলেজের মাধ্যমে প্রতিবছর ৩ লক্ষাধিক শিক্ষার্থীকে স্নাতক সম্মান ডিগ্রি প্রদান করে আসছে। পূর্বপ্রচলিত তিন বছরের সনাতনী ধারা পরিবর্তন করে, ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ হতে প্রফেশনাল কোর্স হিসাবে চারবছর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) এবং একবছরের স্নাতকোত্তর কোর্স শিক্ষাক্রম চালু করা হয়। উচ্চশিক্ষাকে দোরগোড়ায় এনে… Read more »

‘দুর্নীতিবাজ’ কর্মকর্তা গ্রেফতার: লাখো শিক্ষার্থীর জীবন নিয়ে তামাশা!

/

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বদরুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করেছে ১৩ মার্চ। এরপর তাকে আদালতে নেওয়া হলে শুনানি শেষে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। দুর্নীতিতে অভিযুক্ত হয়ে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এই কর্মকর্তা কারগারে রয়েছেন। খবরটি পুরনো এবং একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার এমন দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ার বিষয়টি লজ্জার।… Read more »

জাতীয় (পরীক্ষা) বিশ্ববিদ্যালয় ও মধ্যবিত্তের উচ্চশিক্ষার প্রাণ সংহার

/

দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সেশনজট নিরসনের জন্যই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সৃষ্টি। পরবর্তীকালে জাবি নিজেই যখন ঐ গর্তে পড়ে কর্দমাক্ত হয়ে গেল তখনই সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব সরকারি কলেজকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনায় নিয়ে আসার প্রক্রিয়া জোরদার করা হয়। এ প্রেক্ষিতে জাবি কর্তৃপক্ষ একটি ক্র‍্যাশ প্রোগ্রাম হাতে নেয় যাতে তাদের অস্তিত্ব টিকে থাকে এবং ২০১৮ সালের মধ্যে… Read more »

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগান্তকারী উদ্যোগ এবং কিছু অনুরোধ-অনুযোগ

/

বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় অতি পরিচিত অপ্রিয় একটি শব্দ হল ভর্তিযুদ্ধ। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরাই জানে এটি কি পরিমাণ ভয়াবহ এবং ক্ষেত্রবিশেষে ভয়ংকর একটি পদ্ধতি। এদেশে ১ম শ্রেণি থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত ভর্তির ক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষা নামক একটি ব্যবস্থার দ্বারা যোগ্যতার প্রমাণ দিতে হয়। যদিও ৬০ মিনিটের একটি নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষার মাধ্যমে একটি শিক্ষার্থীর মেধা যাচাই সম্ভব কি… Read more »

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ফলাফল

/

আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০০৪-২০০৫ সেশনে ভর্তি হই। ২০০৮ সালের ৪র্থ বর্ষের চুড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহন করি ২০১০ সালের ২৩ আগষ্টে। এখন চলছে ২০১১ সালের মে মাস। অথচ আজ অবধি আমরা আমাদের ফলাফল হাতে পাইনি। ৪ বছরের কোর্স সম্পন্ন করতে যদি ৭ বছর লেগে যায় তাহলে আমরা রেজাল্ট পেয়ে কতদিন চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবো সে… Read more »