ল্যান্টানা ঝোপঝাড়ে প্রজাপতির ওড়াওড়ি

/

ঝোপে দিনেদুপুরে লন্ঠনের আলোর বিচ্ছুরণ। গ্রীষ্মের এই ভরা বর্ষায় হলুদ, লাল, কমলা, বেগুনি বা মেজেন্টা রঙের জাদু ছড়াচ্ছে বুনোফুল ল্যান্টানা বা লন্ঠন ফুল। সেই আলোর প্রদীপে শিখা হয়ে ফুটেছে বাহারি প্রজাপতি। অভাবনীয় এই দৃশ্য দেখতে হলে যেতে হবে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার কার্যালয়ের পেছনে উত্তরপাশে অযত্নে-অবহেলায় পড়ে থাকা ঝোপঝাড়ে। সেখানে গেলে প্রবেশপথেই পড়বে একটি… Read more »

প্রজাপতির রঙিন ডানার মোহনীয় সাজ!

/

প্রজাপতির রঙিন দুই ডানার মোহনীয় এই সাজ যেকোনো মানুষকেই তার দিকে এক নজর তাকাতে বাধ্য করে। সবুজ প্রকৃতিতে ওদের অবাধ ওড়াউড়ি ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। তাই প্রকৃতি হারাচ্ছে তার আপন সৌন্দর্য্য। বুনো প্রজাপতির এই ছবিটি তোলা হয়েছে মিরসরাই উপজেলার বাগবিয়ানী ঝর্না এলাকার একটি পাহাড়ি ছড়ার পাশ থেকে। ছবি- সুজন চন্দ্র মন্ডল, মিরসরাই, চট্টগ্রাম।    

slide

হৃদয়ে রাখি বাংলাদেশ!

/

. প্রকৃতিও ধারণ করে বাংলাদেশের লাল সবুজ রঙ। বর্ষার জলসুধায় সেজে ওঠে বিস্তীর্ণ সবুজ ধানক্ষেত। ক্ষেতের ধারে মাছ ধরেন জেলে। জেলের নৌকার ছইয়ে থাকে উদীয়মান সূর্যের লাল রঙ। আর এভাবেই জনপদে আঁকা হয়ে যায় আমাদের প্রাণের বাংলাদেশ! ছবিটি ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বাংগুরী গ্রাম থেকে তোলা। ফারদিন ফেরদৌস সুখেরছায়া ০৪.০৯.২০১৭

বর্ষার সবুজ ও শরৎ মেঘের যুগলবন্দী!

/

শরতের আকাশজুড়ে কালো মেঘ। নিচে বর্ষার জল, নৌকো, শাপলা, ধানের সবুজ পত্র-পল্লব আর সাথে ক’জন গ্রামীণ ও শহুরে মুগ্ধ পরিব্রাজক। এখানে প্রকৃতি তার রূপ দেখানোয় বড় উদার ও প্রেমময়! বর্ষার সবুজ আর শরৎ মেঘের মেলবন্ধন দেখতে চাইলে ছুটতে হয় এমন গ্রামের স্বর্গে! ছবিটি ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বাংগুরী গ্রাম থেকে তোলা। ফারদিন… Read more »

slide

শেষ সীমানার স্বর্গরাজ্য: জাফলং এবং বিছানাকান্দি

/

অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল এই স্বর্গরাজ্যে যাবার। হঠাৎ করে মন মতো ছুটি আর চমৎকার একটি ট্রাভেল গ্রুপ  ’চল ঘুরি বাংলাদেশ’ এর একদিনের ভ্রমণে বেরিয়ে পড়লাম।  এবারের ঘোর বর্ষায়  ১৩.০৮.২০১৭  তারিখে ৫০ জনের দল বিছাকান্দির উদ্দেশে রওনা দিলাম। বর্ষার কারনে ভ্রমন সম্পন্ন করাটা অনেক কঠিন ছিল। ১৪.০৮.২০১৭ তারিখ জাফলং পৌঁছালাম। ছবি: অপরূপ সৌন্দর্যে ভরা পাংথুমাই গ্রাম… Read more »

লাল ফড়িং যেন রূপসী বাংলা!

/

  সবুজ ঘাসের ডগায় লাল ফড়িং! যেন বাংলাদেশের পতাকার মধ্যবর্তীনি। রুপসী বাংলার সত্যিকারের রূপ। ছবিটি গাজীপুরের বাংগুরী গ্রাম থেকে ২৬ জুন ২০১৭ তারিখে তোলা। ফারদিন ফেরদৌস সুখেরছায়া ১৩ জুলাই ২০১৭।

slide

প্রকৃতির প্রতি তো প্রতিবাদী হওয়া যায় না!

/

যে সম্পর্কে বন্ধুত্ব অবধারিত, নইলে ভীষণ বিপদ হয় আমাদের– প্রকৃতির সাথে শত্রুতা চলে না, তাকে কোনো অজুহাত দেয়াও যায় না। একটু পরে আসো বৃষ্টি, ঝড়টা না হয় নাইবা হলো- এসব কথা প্রলাপ হয়ে যায় শুধু। প্রকৃতির চেয়ে শক্তিশালী ঈশ্বর কি আছে কিছু?     ঝলমলে রোদ, গরমের দীর্ঘশ্বাসে যখন প্রাণ ওষ্ঠাগত, পথচারী তখন একটু বেশি… Read more »

মেঘ গুড়গুড় ভোরে

/

পৃথিবীর আরেক রাত শেষে ভোর এলো। বিদ্যুৎ চলে গেলো। খিড়কি খুলতেই ছটফটে বাতাসের তোড়, নাকে মুখে। ঠাণ্ডা, স্নিগ্ধ, ভীষণ শিরিশিরে। আর খুব খুব ফিকে আলোয় তাকাতেই, আকাশজুড়ে মেঘ। সাদাকালো উড়াল পাহাড় যেনো। বইছে ভীষণ। দ্রুত রঙ বদলে নীলাভ থেকে কুচকুচে কালো। এভাবে এই ঘুমন্ত শহরে, জানলার ধারে  বসে, এই আষাঢ়-ভোরে, ভূমিষ্ঠপ্রায় বৃষ্টির মুখ দেখা যায়। এসময়… Read more »

গ্রাম বাংলার চিরসবুজ কাঁচা ধানের মাঠ

/

বিগত প্রায় এক মাস পূর্বে সপরিবারে আমি ঢাকা-কমলাপুর স্টেশন থেকে বাড়ি (সনুড়া, কলমাকান্দা, নেত্রকোণা) যাওয়ার উদ্দেশ্যে হাওড় এক্সপ্রেসে চড়ি। ট্রেন ছাড়ে রাত ১২টা ৫ মিনিটে। ট্রেনে ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে ঠাকুরাকোণা স্টেশনে পৌঁছে যাই সকাল ৫টা ৩০ মিনিটে। তখন গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছিল। স্টেশনে নেমেই সিএনজি অটোরিক্সায় চড়ে পাগলা বাজারে চলে যাই আধা ঘন্টার মধ্যে। রিক্সা থাকলেও আমার… Read more »

ঘুরে এলেম তিলোত্তমা হাতিয়া

/

প্রায় প্রতি ঈদের রাতেই বাসা পালিয়ে মায়ের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যাই বাংলার প্রকৃতি ইতিহাস ঐতিহ্য সংস্কৃতির কাছে মায়ার টানে। ঘুরে বেড়ানো আমার সব চেয়ে প্রিয় ভাললাগা। ছয় বছর আগেও হারিয়ে যাওয়া সুখ পাখি সুরঞ্জনাকে নিয়ে ঘুরে বেড়াতাম ঢাকা ও তার আশে পাশের প্রকৃতি ইতিহাস আর সংস্কৃতির খোজে। এখনো বদলায়নি আমার সেই ভাললাগাটা। যদিও বদলে… Read more »