৬ অক্টোবর উত্তরায়…এসো মিশি শারদ শুভ্রতায়

/

জাবির আড্ডার স্মৃতি এখনো মুছে যায়নি। ফিকে হয়নি রমনার কৃঞ্চচূড়া আড্ডা। স্মৃতিতে জ্বলজ্বল করছে ময়মনসিংহের বরষার আবাহন। প্রাণ আবার উথলে উঠেছে বন্ধুদের আশায়, ৬ অক্টোবর উত্তরায়.. এসো মিশি শারদ শুভ্রতায়…। বন্ধুরা, মাঝে মাঝেই তোমাদের ফেবুতে দেখি, খানিকটা চ্যাট-ফ্যাটও হয়। কারও সাথে কথা হয় মুঠোফোনে। তাই বলে কি আর প্রাণের হাহাকার থামে? পাশাপাশি বসে উচ্ছল কলরবে… Read more »

কাজের আশায় ভারত গমন, নিঃস্ব হয়ে দেশে ফেরা! পর্ব-৪

/

এ ভাবে কানাইর সাথে ঘোরাফেরা করতে-করতে কেটে গেল আরও কয়েকদিন। আমার চিন্তা আরও ঘনীভূত হতে লাগল, এখন আর কিছুই ভালো লাগছে না। চার-পাঁচদিন পর একদিন সকালবেলা কানাই বলল, ‘চল দুইজনে টাউনে গিয়ে ঘুরে আসি।’ আমি জিজ্ঞেস করলাম, ‘কোথায় যাবি?’ কানাই বলল, ‘আজ তোকে মেট্রো ট্রেনে চড়াব আর সময় পেলে হাওড়া, তারামণ্ডলও দেখাতে পারি।’ এ তো… Read more »

কাজের আশায় ভারত গমন, নিঃস্ব হয়ে দেশে ফেরা! পর্ব-৩

/

স্টেশনের বাইরে গিয়ে চা-বিস্কুট নিয়ে খাচ্ছি, এমন সময় ট্রেনের হুইসেল শোনা যাচ্ছে। ট্রেনের হুইসেল শুনে আমার বুকের ভেতরে কামড়াকামড়ি শুরু করে দিল। কখন আমি স্টেশনের ভেতরে যাব, সেই চিন্তায় আমার চা-বিস্কুট খাওয়া শেষ। ঝটপট দোকানদারকে চা-বিস্কুটের দাম দিয়ে দৌড়ে চলে আসলাম, স্টেশনের ভেতরে। ভেতরে আসার পর কানাই বলল, “কী খেয়েছিস? এতো ঝটপট চলে এলি যে?”… Read more »

কাজের আশায় ভারত গমন, নিঃস্ব হয়ে দেশে ফেরা! পর্ব-২

/

২৭ চৈত্র ১৩৯৯ বঙ্গাব্দ, ১০ এপ্রিল ১৯৯৩ ইং রোজ রবিবার। ঠিক সকালবেলা বাইর হলাম, বড়দা’র বাসা থেকে। আগেই নাস্তা সেরে জামাকাপড় পড়ে রেডি হয়েছিলাম। জামাকাপড় পড়তেই বড়দাদা জিজ্ঞেস করলেন, “কোথায় যাবি?” আমি বললাম, “দাদা, আমি কানাইদের বাসায় যাচ্ছি। আজই মনে হয় রওয়ানা দিতে পারি, আমার জন্য আশীর্বাদ রাখবি।” বড়দাদা কিছুক্ষণ চুপ করে থাকার পর বলল,… Read more »

পড়ন্ত বিকেলে চিকনাগুলের জলকন্যায়

/

চারিদিকে থৈথৈ করছে অথৈজল, মাঝখানে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে একটি বন । দূর থেকে মনে হয় সবুজ শাড়ি পরে জলে ডুব দিয়েছিল এক জলকন্যা , জল থেকে উঠে শুকাতে সূর্যের কাছে এলিয়ে দিয়েছে সেই ভেজা গা । কাছে যেতে যেতে কম্পিউটারের পিকচার জুম অপশনের মতো ছোট থেকে ক্রমেই বড় হতে থাকে । নাগালে যেতেই মনের গভির… Read more »

কাজের আশায় ভারত গমন, নিঃস্ব হয়ে দেশে ফেরা! পর্ব-১

/

বিয়ে করার দু’বছর পরই নতুন অতিথির আগমন। আমাদের কোলজুড়ে আসে একটি মেয়ে সন্তান। মায়ের নামের সাথে মিলিয়ে নাম রাখা হলো অনিতা। কিন্তু তখনও অভাব আমার পিছু ছাড়ছে না। তখন আমার বেতন ছিল মাত্র ১৭০০ টাকা। তার উপরে আবার বাসা ভাড়া, খাওয়া খরচ। তবু চলছিল আমার অভাবের সংসার, খেয়ে না খেয়ে। তখন কাজ করি নারায়ণগঞ্জের কোনও… Read more »

নিছক ভ্রমণকারী কেন হবেন?

/

আপনি নিছক একজন ভ্রমণকারী কেন হবেন? আমি কেন তা হব? সমাজ সভ্যতায় আপনার আমার কোনো দায় নেই, থাকা উচিৎ না? ভ্রমণে প্রতি পদেপদে খরচ হয়, টাকা বাঁচিয়ে চলতে হয়, এতে দায় বাড়ে বৈ কমে না একটুও। এর মানে এই নয় যে ভ্রমণের গুরুত্ব আমি অস্বীকার করছি। তবে ‘গুরুত্ব’ শব্দটির ভীষণ আপেক্ষিকতা আছে, সেটিও মাথায় রাখতে হবে।… Read more »

সাজেক ভ্যালি ও রাঙ্গামাটি ভ্রমণ!

/

দুই রাত আর তিন দিনের ভ্রমণ শেষ করলাম। ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি হয়ে সাজেক ভ্যালিতে এক রাত অবস্থান করি। পরেরদিন খাগড়াছড়ি শহরে রিসাং ঝর্না ও আলুটিলা গুহা ভ্রমণ শেষে রাঙ্গামাটির পথে যাত্রা করে রাতে রাঙ্গামাটি সদরে পৌছাই। পরেরদিন কাপ্তাই হ্রদে নৌকা ভ্রমণ করে রাতের বাসে ঢাকা ফিরে আসি। সাজেক সত্যিকার অর্থেই সুন্দর প্রাকৃতিক পাহাড়ি একটি এলাকা।… Read more »

কাব্যময় সংকলন ‘নগর নাব্য ২০১৬’

/

সাদা কালো শব্দের নান্দনিকতায় নগরনাব্য। অজস্র কাব্যময় ভ্রমণ অভিজ্ঞতায় আর লেখকদের বর্ননায় সমৃদ্ধ নগর নাব্য ২০১৬। এটা নি:সন্দেহে বলা যায় ব্লগ.বিডিনিউজ২৪.কম  পরিবারের এক মহৎ উদ্যোগ। আমি ব্যক্তিগত জীবনে গল্প উপন্যাস লিখি। ২০০৬ সাল থেকে আমার লেখা উপন্যাস প্রকাশ হচ্ছে। ব্লগে নাগরিক সমস্যা নিয়ে যে কোনো লেখা গ্রহন করা হলেও গল্প-উপন্যাস গ্রহন যোগ্য নয়। তাই আমাদের… Read more »

সোলায়মানি চা

/

কাতারে আসার পরে ৩ বেলা খাবারই রেস্টুরেন্টে খেতে হয়েছে। রান্না করার ঝামেলা এবং রান্নায় তেমন পারদর্শী নই বলে এই ব্যবস্থা। নতুন দেশ নানান কিসিমের ভাষা। নানান দেশের মানুষের মাঝে নিজেকে ভিন গ্রহের বাসিন্দা মনে হতো। আশেপাশে সাউথ ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্টই বেশি। বাঙালি রেস্টুরেন্ট একটি। ঘুরে ফিরেই খাই একেক সময় একেক রেস্টুরেন্টে। খাওয়ার সময় একটা নাম বেশ… Read more »