ক্যাটেগরিঃ কৃষি, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

রংপুরের বাসিন্দা মোস্তাফিজার রহমানের  ৭০ রকমের ফুলের গাছ দিয়ে সাজানো বাগান

 

বাসা-বাড়ির বারান্দায় ছোট পরিসরে  চাষাবাদের শখ এখন রীতিমত সামাজিক আন্দোলনে পরিণত হয়েছে রংপুরের বাসিন্দাদের কাছে।

২০০৭ সালে বিভাগ ও ২০১২ সালে সিটি করপোরেশনে উন্নীত হওয়া রংপুর সিটির অসংখ্য বাসা-বাড়ির বাসিন্দারা এখন বিভিন্ন ধরনের ফুল-ফল, ঔষধি, বনস্পতি এমনকি সবজির গাছও লাগাচ্ছেন। ছাদ বাগানে লাউ,  করল্লা, শিম, বেগুন, বুশবিন আর মরিচ চাষ এখন নিয়মিত ঘটনা।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুক ব্যবহার করে এখন বাগানিরা একে অন্যের সঙ্গে সহজে যোগাযোগ করছে। বিনিময় করছে গাছের চারা, বাগান বিষয়ক সমস্যা ও এর সমাধানও।

‘সবুজ রংপুর গড়ি’ স্লোগানে ‘হামরা রংপুরের সবুজপ্রেমী’ ফেইসবুক গ্রুপটি এভাবেই রংপুরের সবুজপ্রেমীদের কাছে  হয়ে উঠেছে ভরসার একটি ক্ষেত্র।

বাসা-বাড়ির ছোট বারান্দায়-কার্নিশে টবে গাছ লাগানো এক সময় বিলাসিতা ছিল। হাতে গোনা কয়েকটি বাড়ির বারান্দাতেই পাওয়া যেত ফুল-ফলের গাছ।

বারান্দায় করল্লা চাষ করছেন জান্নাতুল মাওয়া

রংপুরের প্রাণকেন্দ্র দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রধান সড়ক ষ্টেশন রোডে আমাদের ছাত্রাবস্থায়  দুই ধারে প্রাচীন ও বিশাল বড় বড় গাছ দেখেছি আমরা। সড়কটি চার লেন করার সুবাদে বিশাল ও প্রাচীন গাছগুলো কাটা পড়েছে। তবে শহরে নতুন গাছ লাগানোর খবর পাওয়া যায় না।  পথঘাট আর ভবন উন্নয়নের ডামাডোলে রংপুর তার সবুজাভাভ হারিয়েছে অনেকখানি।

বাসা-বাড়ির প্রতিটি কোনা সবুজে ভরিয়ে তোলা তাই এখন নিদারুণ এক প্রয়োজন হয়ে উঠেছে। অন্তত নতুন প্রজন্মকে প্রকৃতির সান্নিধ্য ও নাগালে রাখাতে এর চেয়ে ভাল উপায় আর কী হতে পারে?

‘হামরা রংপুরের সবুজপ্রেমী’ গ্রুপের অ্যাডমিন ডেইজি আরিফের  ছাদব্গানে ফোটা গাঁদা ফুল

কারুপণ্যর কার্যালয় পুরোটাই মোড়ানো সবুজে

 

ফেইসবুকের ‘হামরা রংপুরের সবুজপ্রেমী’  গ্রুপের  অ্যাডমিন ও যার হাত ধরে এই গ্রুপটি গাছ লাগানোকে আন্দোলনের রূপ দিচ্ছে সেই জিকরুল সুমন বলেন,  “সবুজের প্রতি প্রগাঢ় ভালবাসা থেকেই এই আন্দোলনে নিজেকে সঁপে দিয়েছেন। সে চিন্তা থেকেই গ্রুপের যাত্রা। ইতোমধ্যে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান ও সংস্থায় তারা সবুজায়নের কাজ করেছেন।

রংপুর সিটি করপোরেশন অনুমতি দিলে শহরের সড়ক বিভাজকগুলোতে তারা নিজ খরচ ও দায়িত্বে সবুজায়নের কাজ করে দিতে চান।

একই সঙ্গে সিটির ৩৩টি ওয়ার্ডের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই সবুজায়নের পরিকল্পনা তাদের আছে বলে জানান জিকরুল সুমন।

 

 

ছবি:  ‘হামরা রংপুরের সবুজপ্রেমী’ ফেইসবুক গ্রুপ