ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

একদিকে বলছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ কে বিশ্ববিদ্যালয় করতে ওনাদের কোন টাকা লাগবে না বরং উল্টা ইউনিভার্সিটি সরকারকে টাকা দিবে। অন্য দিকে বলছেন হসপিটাল সার্ভিস আগের মতই থাকবে, তাহলে টাকা আসবে কোত্থেকে? আবার নেতারা হিসেব করছেন কার কতো মাসে এক্সট্রা ইনকাম হবে হাসপাতাল থেকে! ওনারা বলছেন সরকার চাচ্ছে পর্যায়ক্রমে পুরনো মেডিক্যাল কলেজ গুলকে ইউনিভার্সিটি বানাতে অন্য দিকে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বলছেন ইউনিভার্সিটি করার জন্য এলামনি ট্রাস্ট অব ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ যেন অর্ধেক টাকা যোগার করে। আমার মনে হয় এলামনি ট্রাস্ট এর লোকজনের বারংবার পীড়াপীড়িতে প্রধান মন্ত্রী বিরক্ত হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। হায়রে ডিএমসি এলামনি ট্রাস্ট তোরা সারা জীবন ডিএমসি কে শুষে খেয়ে এখন এটার অস্তিত্ব বিলীন করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছিস!!! এর নাম কি এলামনি ট্রাস্ট? যে এলামনি প্রতিষ্ঠানটির অস্তিত্তের জন্য সংগ্রাম করার কথা সেই এলামনি আজ একে বিলুপ্তির পথে নিয়ে যাচ্ছে! কিন্তু কেন? যারা এলামনির হর্তা-কর্তা তাঁদের কিছু ব্যক্তিগত ফায়দা এর জন্যই এরূপ করছেন। একদিকে বলছেন মেডিক্যাল কলেজ এর মান অক্ষুণ্ণ রাখবেন অন্যদিকে নাম পরিবর্তনের মাধ্যমে এর অস্তিত্ব বিলুপ্ত করছেন। এইগুলা কি হাস্যরস নয়?

গুডউইল বলে একটা কথা আছে ,যার দাম অনেক অনেক বেশী। এই মেডিক্যাল কলেজটা বাংলাদেশের জন্য একটা গুডউইল। কয়েকদিন আগে পত্রিকায় দেখলাম এই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এর এক কৃতি সন্তান আমেরিকার শ্রেষ্ঠ চিকিৎসক নির্বাচিত হয়েছেন। এই মেডিক্যাল কলেজ এর সন্তানেরা সারা বিশ্বে বাংলাদেশ এর নাম আরও উঁচুতে নিয়ে যাচ্ছে। এই ঢাকা মেডিক্যাল এর মাধ্যমে অনেকে বাংলাদেশকে চিনেছেন। ঢাকা মেডিক্যাল এর ঐতিহ্যের কারনে এদেশের চিকিৎসকরা বিদেশের মাটিতে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন। আর এই সুযোগ সুবিধা গুলো পাচ্ছেন ঢাকা মেডিক্যাল এর গুডউইল এর জন্য। সেই গুডউইল আর পরিচিতিটাকে নিমিষে হাওয়ায় মিলিয়ে দিতে চাইছেন ইউনিভার্সিটি এর নাম করে। আমি বুঝিনা তাঁরা কেন এই সিম্পল ব্যাপারটা বুঝতেছেন না!! আসলে ওনারা সবাই খুদ্র স্বার্থের আবর্তে বৃহত্তর স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিতে চাইছেন। আমরা খুবই স্বার্থপর জাতি। এইসব মেডিক্যাল হল ডাক্তার তৈরির কারখানা। এখান হতে বাহির হচ্ছে হাজার হাজার ডাক্তার। এখানকার ট্রেনিং এর কোন বিকল্প নাই।

ইউনিভার্সিটি করে সেই ট্রেনিং এর উন্মুক্ত দ্বারকে চিরদিনের জন্য রুদ্ধ করে দিতে চাইছেন ওনারা,যেমনটি হয়েছে বিএসএমএমইউ তে। জাতীকে ওনারা কি দিতে চাইছেন ওনারা নিজেরাও জানেন না। ওনারা শুধুই ইউনিভার্সিটি বানাতে চাইছেন ঢাকায় আজীবন থাকার জন্য বিভিন্ন পস্ত/পজিসন বাগানোর জন্য সন্তানদের চাকুরী দেয়ার জন্য , দলীয়করনের জন্য,আরও অনেক অনেক ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের জন্য। আসুন আলোচনা করুন, কি করতে চাচ্ছেন নিজে জানুন ও আমাদের জানান। প্রয়োজনে সবার মতামত নিন। উন্মুক্ত আলোচনা করে সবার মতামত নিয়ে ভালো-মন্দ বিবেচনা করে সবাইকে নিয়ে ঐক্যমতের ভিত্তিতে সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। সবাইকে অন্ধকারে রেখে শুধুই ব্যক্তি স্বার্থে সবার ভবিষ্যৎকে অনিশ্চয়তার মাঝে ঠেলে দিবেন না।