ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

দেশে এখন বিশ্ববিদ্যালয় এর জোয়ার বইছে। কথায় কথায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বিশ্ববিদ্যালয় বানিয়ে আপগ্রেড এর ফোয়ারা চালু হয়ে গেছে। আমি জানতে চাই বিশ্ববিদ্যালয় মানে কী? বিশ্ববিদ্যালয় নাম দিলেই কি আমাদের গ্রেড বেড়ে গেল! আমাদের মনে যা আসে তাই আমরা করছি। অগ্রপশ্চাৎ কিছু না ভেবেই আমরা বাহাবা নেয়ার জন্য একটা হাস্যকর কাজ করে ফেলছি। আজকাল কথায় কথায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বিশ্ববিদ্যালয় এ রূপান্তরিত করা হচ্ছে। কিন্তু আমরা বিশ্ববিদ্যালয় এর সংজ্ঞাটাই সম্ভবত ভুলে গেছি। বিশ্ববিদ্যালয় মানে যেখানে সব ধরনের জ্ঞান এর চর্চা হয় আর যেথা হতে সব বিষয়ের উচ্চতর ডিগ্রি দেয়া হয়। কিন্তু আমাদের দেশে আজকাল এই বিশ্ববিদ্যালয় নামটার অপব্যবহার চালু হয়েছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে ঢালাও ভাবে বিশ্ববিদ্যালয় নাম দিয়ে দেয়া হচ্ছে। এতে করে ব্যাপারটা অনেকের মাঝে হাস্যরসের জন্ম দিয়েছে। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি ইত্যাদি। নামত দেয়া সহজ কিন্তু এটা কি ঠিক হচ্ছে?

একটা বিষয় নিয়ে যদি একটা বিশ্ববিদ্যালয় হয় তাহলে কি ওটা হাস্যকর হচ্ছে না? সারা দুনিয়ার কোথাও কি এই নজির আছে? সারা দুনিয়ায় যেখানে এইসব বিষয়গুলো বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এর আন্ডারে স্কুল হিসাবে আছে আমরা তাঁদের নাম দিচ্ছি বিশ্ববিদ্যালয়! আর এতে মনে করছি ওদের মান অনেক বেড়ে গেল! আমরা যে কতটা বোকার স্বর্গে বাস করছি তার বলার আর অপেক্ষা রাখে না। লোকজন এইসব দেখে আমাদের নিয়ে হাসে। যদি নাম দিলেই মান বেড়ে যেত তাহলে বিভিন্ন দেশের হাজার বছরের সেই সব প্রতিষ্ঠান অনেক আগেই বিশ্ববিদ্যালয় নাম নিয়ে ফেলত। আসলে এই নামের যে মানে তাই আমরা জানি না। আর জানিনা বলেই আমরা এইভাবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বিশ্ববিদ্যালয় নাম দিয়ে নিজেদের অজ্ঞতাকে প্রকাশ করছি। মানে না বুঝলে কেউ গালি দিলেও মনে হবে আশীর্বাদ করছে। তাই মানে বুঝা জরুরী। কখন একটা প্রতিষ্ঠানকে বিশ্ববিদ্যালয় বলা যাবে তাও জানা জরুরী। তাই কোন কিছুকে নাম করনের আগে তার যথারততা প্রমান করা জরুরী।

আমার মনে হয় আমাদের অজ্ঞতাই আমাদেরকে এই ধরনের হাস্যকর সিদ্ধান্তের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এইভাবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে নাম সর্বস্ব বিশ্ববিদ্যালয় বানানো কোন প্রয়োজন নাই। নাম করনের মাধ্যমে এঁদের আপগ্রেড না করে বরং ডাউনগ্রেড করা হচ্ছে। উদাহরন স্বরূপ বলা যায় যে সরকার ঢাকা মেডিকেল কলেজ কে বিশ্ববিদ্যালয় নাম দিয়ে আপগ্রেড করার চিন্তা করছে। কিন্তু বাস্তবে কি হবে দেখুনঃ ঢাকা মেডিকেল একটি দুনিয়াযোরা স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান। এটা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর মেডিকেল অনুষদের একটা অংশ। ঢাকা মেডিকেল এর ছাত্ররা ঢাকা ইউনিভার্সিটি এর ছাত্রই। ওনারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতেই সার্টিফিকেট পায়। ঢাকা মেডিকেল কলেজকে ইউনিভার্সিটি করলে ছাত্ররা ঐ ইউনিভার্সিটি থেকেই সার্টিফিকেট পাবে। আমার প্রশ্ন ঢাকা মেডিকেল ও ঢাকা ইউনিভার্সিটি থেকে এখন যে সার্টিফিকেট পায় তার দাম কি ঢাকা মেডিকেল ইউনিভার্সিটি থেকে প্রাপ্ত সার্টিফিকেট এর সমান হবে? কখনই নয়। দুটা স্বীকৃত প্রতিষ্ঠানের নাম মুছে সদ্য প্রসূত একটা নাম সর্বস্ব মেডিকেল ইউনিভার্সিটি এর সার্টিফিকেট কতটা গ্রহণযোগ্য! এভাবে নাম পরিবর্তনের ফলে দীর্ঘ দিনের গড়ে উঠা ঐতিজ্জ নিমিষে হাওয়ায় মিলিয়ে যাবে। তাহলে আদতে কি হল? আপগ্রেড না ডাউনগ্রেড? আমাদের এইসব ঐতিহাসিক প্রতিষ্ঠান গুলোকে দেশ ও জনগণের স্বার্থে রক্ষা করা নিতান্তই অপরিহার্য। এইগুলিকে ইউনিভার্সিটি নাম দিয়ে কিছু লোক নিজেদের ব্যক্তি স্বার্থ চরিতার্থ করতে চাচ্ছে। এতে দেশ,জনগন,ছাত্র কারো কোন লাভ হবে না। আসুন সবার স্বার্থে এই অপ্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত বাতিল করুন।