ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

একদল তরুন তরুণী কোন এক মহৎ উদ্দেশে সাড়া দিয়েছে। নিজেদের সময় অপচয় করে রাস্তায় নেমেছে। ফুল বিক্রি করছে। কোন এক সংগঠন এর নামে। এই অংশটা বাদ দিলাম। সংগঠন মুখ্য নয়। কথা হল এক দল মানুষের এখন গায়ে লাগছে। টাকা কোথায় যায়। কার পকেটে, কিভাবে খরচ হয়?? আমি নিজে জানি না কোথায় যায় এই টাকা। নিজে এই কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত নই। তবু ভাবি। আচ্ছা ৩৩ লাখ মানুষ নিঃস্ব হয়ে গেল শেয়ার বাজার থেকে। এত বড় বড় দুর্নীতি। আর আমরা কিনা চোখ রাঙ্গাই এই নিস্পাপ তরুন তরুণীদের উপর। এদের দুপুরের খাবার কিনতে অনেক টাকা লাগে, অভিযোগ রয়েছে। আমার কথা হল ১০০ টাকা থেকে যদি ১০ টাকার উপকার ও হয় খারাপ কিসে?? মন্ত্রি রা এম পি রা তহ আর কার উপকার করবেন না। জনগন করছে জনগন এর জন্য।

এই উচ্ছল দল নাকি বাংলিশ বলে,আধা বাংলা আধা আংরেজি বলে,আমার কথা হল এতে সমস্যা কোথায়??? হিন্দি তো আর বলতেছে না??? ব্লগ এ দেখলাম ইংলিশ মিডিয়াম নিয়া কি একটু কথা। এইটা আমাদের ভুল ধারনা। আংরেজি ভাষায় পড়াশুনা করলেই পথভ্রষ্ট হয়,এটা ভুল কথা। মুখে আংরেজি বললে মনে বাংলাদেশী থাকা যায় না এমন কোন কথা নেয়। তাদের উদেশ্য মহৎ হতেই পারে। ঢাকার কথাই বলি, অনেক প্রতিষ্ঠান এর স্টুডেন্টরা বেরিয়ে এসেছে, এদের দেখে অনুপ্রাণিত হচ্ছে আর অনেকে। প্রাইভেট কি সরকারি সবাই এক সুতোয় গাঁথা। আপনাদের জন্য অনেক শ্রদ্ধা রইল। কারন আমি জানি আপনারা সত্যি মানুষকে সাহায্য করার ইচ্ছা নিয়ে নেমেছেন। আপনাদের সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলি না। আর ছবি তোলার একটা প্রশ্ন পড়লাম। ছবি তুললে কি হয়?? মুহূর্ত গুলো স্মরণ করে রাখা জেতেই পারে। আপনাদের এই ধরে রাখা মুহূর্ত গুলো অনুপ্রাণিত করছে অন্যদের। আসলে কি ভাল ছবি দেখলে আমাদের গা জলে। অভিনেত্রী আর পারসোনা এর ছবি অথবা ভিডিও এর কথা শুনলে মুখভর্তি গরম লালা জমে। আপনাদের জন্য শুভ কামনা রইল। মনে রাখবেন আপনাদের ইচ্ছা শক্তি জাতির অনেক বড় সম্পদ। আপনাদের শ্রম, জাতির প্রতি আপনাদের ভালবাসা জাতি স্মরণে রাখবে।মনে রাখবেন নতুন কিছু শুরু করতে গেলে বাধা আসবেই, কথা উঠবেই। তাই বলে থেমে থাকবেন??? কখনই না…………।