ক্যাটেগরিঃ পাঠাগার

collage10931536_10153177996149448_6716619848038640759_nimages (2)

 

স্বাধীন ভাবে মতামত প্রকাশের স্বাধীনতা আমাদের সবারই আছে কিন্তু তা যুক্তিযুক্ত ভাবে । আর  কেউ যদি কোন বিষয়ে  যুক্তিযুক্ত ভাবে তার মতামত তুলে ধরে তবে তা সকল যৌক্তিক মানুষের কাছে গ্রহনযোগ্য হবে বলে আমার ধারনা । আমি এখন আপানদের কাছে একটি বিষয় তুলে ধরব। আশা করি যৌক্তিক মানুষ হিসেবে আপনারাও তা গ্রহন করবেন ।

এইতো কিছুদিন আগে একুশে বইমেলা শুরু হওয়ার কিছু দিন পর আমাদের দেশের স্বনামধন্য লেখক ব্যক্তিত্ব জনাব আনিসুল হক  এর একটি বই প্রকাশিত হয়, বইটির নাম “বিক্ষোভের দিনগুলিতে প্রেম” । বইটির বিষয়ে তার নিজের ফেসবুক পেজে তিনি একটি পোস্ট দেন । তখন বইটির নাম দেখেই আমার কেমন জানি পরিচিত লাগে ।  হটাৎ করে মনে হল এই বইয়ের নামটি তো বিখ্যাত কলম্বিয়ান লেখক গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস এর “লাভ ইন দা টাইম অফ কলেরা” অনুকরণে নামকরণ এবং  “জনাব আনিসুল হক” এর বইয়ের কাভার পেজটিও দেখতে হুবহু গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস এর “লাভ ইন দ্যা টাইম অফ কলেরা” অনুকরণে তৈরি । আর সে জন্যই কৌতূহলব্যঞ্জক মানুষ হিসেবে আমি তার ফেজবুক পেইজ এ “বিক্ষোভের দিনগুলিতে প্রেম” পোস্টটির নিচে কমেন্ট করি যে ” বইটির নাম কেমন যেন কলম্বিয়ান লেখক গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস এর “লাভ ইন দ্যা টাইম অফ কলেরার ” মত লাগছে ।

অবাক করার মতো বিষয়টি এই যে, কিছুক্ষন পর যখন আমি আবার পোস্টটি চেক করি, যে কোন প্রতি উত্তর এসেছে কিনা তখন দেখি আমার কমেন্ট করা পোস্টটি নাই আর সাথে আমার কমেন্ট করার অপশন এবং লাইক অপশনটিও নাই। এতে করে আমার মনে হয় যে, তিনি সত্য থেকে পিছপা হচ্ছেন । আর সবচেয়ে খারাপ লেগেছে এই জন্য যে যাকে আমি অনেক ভাল একজন ব্যক্তিত্ব হিসেবে জানতাম তিনি কী করে তার পেজ থেকে কোন প্রকার আর্গুমেন্ট ছাড়াই আমাকে ব্লক করে দিতে পারেন । আর বিষয়টি যদি সত্য নাই হয়ে থাকে তবে তার উচিৎ ছিল তা ব্যাখ্যা করা। কিন্তু তিনি কী করলেন সত্য যেন ছড়িয়ে না পরে সে জন্য তিনি সত্যর  মুখে কুলূপ এঁটে দিলেন ।

আমি আরও লক্ষ করলাম, অনেক ব্যক্তিই নানা অপ্রাসঙ্গিক কমেন্ট লিখেছেন (পরে তা অপসারণ করেছেন তাকে মেনশন করে আমার পাল্টা একটা পোস্ট লেখাতে এবং তার ফেসবুক একাউন্ট এর কমেন্ট বক্স এ পোস্ট করার পর ) কিন্তু তাদের সে কমেন্ট অক্ষতভাবে সেখানেই বর্তমান ছিল। শুধু ছিল না আমার কমেন্টটি (ফেসবুক পেজ এ) ।

তিনি যদি বইটির নাম ও কাভার পেজ বাহিরের কোন লেখক এর কাছ থেকে কপি করেই থাকেন তবে তা সরাসরি বললেই পারতেন । কারন অনেক কিছুই তো রি-মেইক হয় ।

জনাব আনিসুল হকের ফেসবুক পেজের পোস্টর এর লিঙ্কঃ

পরবর্তীতে আমার তার ফেসবুক একাউন্ট এ কমেন্ট লিঙ্কঃ

এখন সকল যৌক্তিক মানুষের কাছে আমার প্রশ্ন এই যে, কোন ব্যক্তি যদি তার মতামত প্রদান করে এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে যদি সঠিক কোন যুক্তি উপস্থাপিত হয় তবে তা একজন যৌক্তিক মানুষ হিসেবে তা গ্রহন করা, “সাহসিকতা না কাপুরুষতা” ??