ক্যাটেগরিঃ ব্লগ


রাজীব হায়দার এর রক্তবীজ থেকে জন্ম নেবে না কি সহস্র রাজীব?
থামিয়ে দেয়া তাঁর প্রতিবাদের ধারা সহস্র প্রস্রবণে পাবে না কি নব গতি?
ঊষার দুয়ারে যে ক্ষীণ প্রত্যাশার আলো, রাখবে কি ঢেকে তাকে মেঘ। পৌঁছুবে না কি মঙ্গলালোকে অনুচ্চারিত তার অমিয় বানী?

চিরঞ্জীব যে, সে কি করে হারায়!
অন্তর্ধান তার, দীপ্ত শপথে উত্তাল করে এক একটি শাহবাগ। বোধহীন বিবেককে করে সচকিত। স্নিগ্ধ নয়নে প্রজ্বলিত হয় প্রতিশোধের অগ্নিস্ফুলিঙ্গ। রেখে যাওয়া তার পদ রেখা দৃপ্ত পদক্ষেপে রূপ নেয় প্রকম্পিত রাজপথে। কিশোরের কোমল বাহুতে শক্তির বান ডাকে। বজ্রমুষ্টি তার ভেঙ্গে দেয় মিথ্যে তাসের ঘর। দীপ্ত শ্লোগানে উবে যায় প্রাণ বায়ু পিশাচের।

তবু বলবে রাজীব হায়দায় নেই?
লেখকের কণ্ঠে নেই সে। তোমার চেতনাও লুপ্ত। তোমাদের কণ্ঠে, আজ কথা বলে কে? রাজীব নয়?
প্রতিবাদ কারো কন্ঠাশ্রয়ী নয়, কণ্ঠই হয় প্রতিবাদাশ্রয়ী ।নয়ত মূল্যহীন তা একেবারেই।
একলা সে পথিক আজ তোমাদের সাথে চলে। একলা সে পথিক আজ সকলের কণ্ঠে শ্লোগান তোলে। একলা তাঁর অগ্নিদৃষ্টি আজ সকলের অগ্নিবাণে দাবানল হয়ে জ্বলে। তবু বলবে কি বন্ধু, আমি নেই?

দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধের প্রথম শহীদ কি ভীষণ অহংকারে আজ হাসে। কতটা সৌভাগ্যে জাতীয় বীরের বরমাল্য আজ তাঁর গলে। সাধারণ ব্লগার রাজীব হায়দার অসাধারণ উচ্চতায় আজ। তোমাদেরই কন্ঠে কথা বলে। বাংলার সব কোনে তাঁর সরব উপস্থিতি আজ। অনুপ্রেরণার উৎস সকল প্রতিবাদের। তোমাদেরই একজন হয়ে চৈতন্যের প্রদিপ হয়ে জ্বলে।

kmgmehadi@yahoo.com