ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

 

0ed98d543d00c48898eea0dd1d576475
অমোঘ আকর্ষনে একদা যে দু’খানা হাত পরস্পরের মধ্যে আশ্রয় খুজিয়া লইয়াছিল। তাহাদের সেই আশ্রয়কে মজবুত বা স্থায়ী করিয়া রাখিতে প্রয়োজন ছিল নিত্য নতুন আবেদন সৃষ্টি করা। তাহা না করিয়া যখন তাহারা এক অপরকে ক্রমাগত খোচাইতে শুরু করিল তখন সেই হাত দুখানা নিজেদের মুক্ত করিতে অস্থির হইয়া উঠিল।

সমস্যা হইল ইতিমধ্যেই তাহাদের সে হস্তবন্ধনের জঠরে বারিয়া উঠা মুক্ত দানা গুলো লইয়া। হাত দুখানা পরস্পর আলাদা হইয়া গেলে যে সে অমুল্য ধন সমূহ ধুলায় লুটাইবে। এক্ষনে এই দুটি হাত ক্ষনে ক্ষনে আলগা হইয়া মুক্ত দানা গুলিকে অস্তিত্ব সংকটে ফেলে। ক্ষনে ক্ষনে জোড় করিয়া একত্রীভূত থাকার চেষ্টা করে। এভাবেই চলিতে থাকে।

কিন্তু সকলের হস্তরেখা যেমন এক নহে তেমনি সকলের মানসিকতাও। সন্তানের জন্য নিজের জীবন বরবাদে যাহারা মোটেই রাজি নন তাহারা অবলীলায় সে বন্ধন খুলিয়া লন। নতুন হস্তে নিজ হস্তখানা সমর্পন করিয়া নব জীবনের স্বাদ লন। তাহাদের সে মুক্তদানারা লুটোপুটি খায় ধুলায় কেউ বখে যায় কেউ বা আশ্রয় খুজিয়া লয়।

অথচ যদি প্রথমেই বুঝিয়া-শুনিয়া, দেখিয়া লইয়া হস্তখানা ধরিত। যদি শুরুতেই খোঁচার বদলে খোচা খানা না দিয়া মানাইয়া লইয়া কিংবা মানিয়া একত্রে বাসের চেষ্টাটা করিত। তাহা হইলে তাহারা কিংবা সে মুক্ত দানারা সুস্থ পরিবেষেই বাঁচিয়া থাকিত।

হইল কি তাহা? হইল না। কেউ কারে নাহি ছাড়ে এ যেন যুদ্ধক্ষেত্র একখানা। কে জিতল হে হারল? সে প্রশ্ন খানা কে করে। উভয়েই জিততে চাহিয়া একত্রে দুজনে হারে।
kmgmehadi@gmail.com