ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

এতদিনে তিনি গাহিলেন শীবের গীতখানি, আর আমরাও বুঝিতে পারিলাম। কেন বর্তমান সরকারের নীতি নির্ধারকগন এমন নির্দ্বিধায় “মুই কি হনুরে” গোছের কথাবার্তা বলতে শুরু করেছেন। মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী সরকারের মনোভাবটাই তুলে ধরেছেন তার একটি কথায়।

তিনি বলেন, “আমার বিশ্বাস, সরকার বদলাবে না। আমরা জাতির জন্য, দেশের জন্য যে ভাবে কাজ করছি তাতে জনগন এই সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনবে। আমরা দশ বছর মেয়াদী (২০১০-২১) যে প্রেক্ষিত পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি সেই পরিকল্পনা আওয়ামীলীগ সরকারই বাস্তবায়ন করে যেতে পারবে।”

নিজেদের কার্যকলাপ নিয়ে তাদের এই যদি হয় মুল্যায়ন। তাহলে তো বলতেই হয় নিজেদের। হাঁদারাম, নাকে তেল দিয়ে ঘুমাও এবার। যা হচ্ছে সবই ঠিক আছে। এবং আগামী ২০২১ পর্যন্ত সব এভাবেই চলবে। এটাই স্বাভাবিক। মাঝে মাঝে আওয়ামীলীগের ভিতর থেকে যারা ভিন্ন সুরে কথা বলেন বুঝে নিতে হবে তারাই বরং ভুল করেছেন। সাগর-রুনি, ইলিয়াস, আমিনুল তালিকাটা এমন কিইবা বড়? এমন তো কোন কথা নেই যে সব রহস্যের জট খুলতে হবে। তাহলে রহস্যময় বলে কোন শব্দ থাকত না। তারপরেও প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আল্টিমেটাম, ডিবি পুলিশের অপারগতা স্বিকার, র্যা বের অক্লান্ত পরিশ্রম আর কি চান বলুন তো। অপেক্ষায় থাকুন। টু বি কন্টিনিউড………। গাড়ী চাপায় লোক মারা যায়, চালকেরই কি সব দোষ? এ লোকগুলো কেন রাস্তায় যায়? তারপরেও যে সরকার কিছু করে না তা কিন্তু নয়। নৌ পরিবহন মন্ত্রীর গাড়ী ধাক্কা দিল যে চালক। সে এখন কোথায় জানেন? খোজ নেন।

বিশ্ব ব্যাংকের কথায় ভর্তুকি তুলে দেয়া যায়। তাই বলে কি মন্ত্রীকে শাস্তি দেবেন নাকি!! জনগনের নাভিশ্বাস ওঠে উঠুক। তাই বলে কি সরকারেরও নাভিশ্বাস উঠাবেন নাকি। ফেলানীদের মত দু’দশটা লাশ ঝুলে থাকলেও কি ভারতের মত এমন মহানুভব একটি দেশের বিরুদ্ধে কথা বলা শোভনীয়? মোটেই নয়। তিস্তা চুক্তি না হয় নাই হল, টিপাইমুখ বাঁধ না হয় হলোই; তাই বলে ট্রানজিট দেব না!! কৃতজ্ঞতাবোধে না হোক, দানেই মহত্বের পরিচয় এটা তো মানবেন? ভারত সরকার তো বলছে তারা কমিটমেন্ট রক্ষা করবে। কে এনেছে এই কমিটমেন্ট? বর্তমান সরকার। কোথায় এর জন্য নাগরিক সংবর্ধনা দেব তা না উল্টো খারাপ বলছি। আমরা আসলে অনেক কিছুই বুঝতে চাইনা। কিন্ত বুঝতে হবে। এবং মনে রাখতে হবে।

তিনি বলেন, “আমার বিশ্বাস, সরকার বদলাবে না। আমরা জাতির জন্য, দেশের জন্য যে ভাবে কাজ করছি তাতে জনগন এই সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনবে। আমরা দশ বছর মেয়াদী (২০১০-২১) যে প্রেক্ষিত পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি সেই পরিকল্পনা আওয়ামীলীগ সরকারই বাস্তবায়ন করে যেতে পারবে।” আমরা কৃতার্থ। যারা “মনের কথা মনেই রাখে, মুখে আনে না”। তিনি ঐ দলের নন। ধন্যবাদ মাননীয় মন্ত্রীমহোদয়। আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ।

সূত্রঃঢাকা, মে ১০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- ২০২১