ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

আমাদের চারপাশে একটি অব্যক্ত কান্নার রোল উঠেছে। কান পাতলেই শোনা যায়। একটি ব্যাকুলতা ছাপিয়ে উঠছে সবার চোখে মুখে ভালভাবে লক্ষ করলেই দেখতে পাওয়া যায়। সবাই যেন উন্মুখ হয়ে বসে আছে কাজী নজরুলের সেই “বিদ্রোহী”র পথচেয়ে। সত্যিই বড় অস্বস্তিকর একটি সময় আমরা পার করছি। পরিবর্তন আজ আকণ্ঠ তৃষায় কাতর কোন মরুযাত্রীর কাছে পাওয়া পরম তৃপ্তির একফোঁটা জল যেন। আর তা কোন নির্দিষ্ট বিষয়ে নয়। পরিবর্তন দরকার প্রায় সব ক্ষেত্রে। আমি-তুমি-আমরা মিলে গড়ব নতুন এ দেশ। তারই তরে নিজেকে তৈরীর প্রয়াসে বদলাই নিজেকে। আমাকে বদলে আমি তোমাকে করি উদ্বুদ্ধ। তোমার আমার এই বদলে যাওয়ায় বদলাবে এ সমাজ-এদেশ। তাই হোক আজ ব্রত।

“মুক্তি চাই” এক মানসিকতা যদি পারে মুক্তি এনে দিতে একটি দেশের। তবে কেন “বদলাতে হবে” মানসিকতা বদলাতে পারবে না এ দেশ? অবশ্যই পারবে, তবে শর্ত একটাই শুধু মুখে নয়, মন থেকেই চাইতে হবে। প্রয়োজন একে নিজের মধ্যে ধারন করা। নিজেকে শানিত করা। লক্ষ যদি থাকে স্থির, বিশ্বাস অটল, কর্মে একাগ্র। নিজেকে ছাড়ায় অজান্তে নিজের। অহং অংশ হয় ইতিহাসের। বদলানোর মানসিকতাই পারে পথ দেখাতে নতুন সম্ভাবনার-সমৃদ্ধ বাংলাদেশের। জীর্ন পুরাতন আকড়ে ধরে কত আর পথ চলা। এসো নতুনের করি বন্দনা। আপন আলোয় উদ্ভাসিত যারা সূর্যের ন্যায় দিপ্ত। এসো সেই বজ্রকণ্ঠের করি আহবান। যার মোহনীয় বাগ্মিতায় বিমুগ্ধ এক জাতি তুচ্ছ জ্ঞান করে আপনায়।

মন্তব্য ০ পঠিত