ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

গরিব মানুষ গনি মিয়া বয়স ষাটের কাছাকাছি । গ্রামের পথ দিয়ে হাঁটছিলেন কাজের খোঁজে । সেই সময়ে মাইকে শুনতে পেলেন নারী কণ্ঠে কে যেন বলছে, বিএনপিই একমাত্র মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের দল। আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধ করেনি। তারা শুধু এপার থেকে ওপার গিয়েছিল। তিনি বলেন, শহীদ জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বেই মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে। বিএনপিই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। একথা শুনে গনি মিয়া মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েন । ওমা একি কথা । কে বলল এই কথা । তার পাশ দিয়ে স্কুলের একছাত্র লংমার্চ দেখতে যাচ্ছে , সে বলে উঠল –

ও দাদা তুমি কিছু জাননা । এই কথা খালেদা জিয়া বলছে ।

কি বলিস । আল্লাহর গজব পড়বে এমন ডাহা মিছা কথায়। বলে কি । তারা ও তো সেই সময় আওয়ামী লীগ ছিল । বি,এন পির সৃষ্টি হল তো দেশ স্বাধীনের পর ।

আমি কি জানি! বলে ছেলেটি নাচতে নাচতে চলে গেল ।

প্রসঙ্গত আজ মঙ্গলবার উত্তরাঞ্চল অভিমুখে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোটের রোডমার্চে সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুল এলাকায় অনুষ্ঠিত এক পথসভায় খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন। শেখ মুজিবর রহমানের মৃত্য দিবসে যার জন্মদিন হয় সে এসব কেন এর চেয়ে জঘন্য কথা বলতেই পারেন । এখন প্রশ্ন হল আমরা কার কথা বিশ্বাস করব । খালেদা জিয়ার কথা নাকি । সেই বৃদ্ধের কথা । যে প্রত্যক্ষ করেছে মুক্তিযুদ্ধ। শেখ মুজিব একজন মহান নেতা এই কথা স্বীকার করতে দ্বিধা থাকার কথা নয় । এখন যদি বলা হয় বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধের সাথে শেখ মুজিবরের সম্পৃক্ততা নেই , তাতে বিস্মিত হব না । এই দেশে সবই স্মভব । আমি কোন দল করি না । আওয়ামীলীগ বলুন আর বি এন পি বলুন আমি দুই দলের বর্তমান ক্ষমতা লিপ্সাকে মনে প্রানে ঘৃণা করি । তাই সম্পূর্ণ সত্য কে মিথ্যে দিয়ে বললে এটা মেনে নিতে পারি না ।

কাউকে অনুরোধ করব সেই ভাষা আজ আমার কিংবা আমাদের নাই । মুক্তিযোদ্ধের সেই মহান শহীদ’দের মনে হয় আজ বিরোধী দলীয় নেত্রী ছোট করে ফেলেছেন । কারন উনার তো অজানা নয় ঊনার স্বামী স্বয়ং শেখ মুজিবর রহমানের আওয়ামী লীগের ডাকে সাড়া দিয়ে মহান মুক্তিযোদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন। সঠিক ইতিহাস জাতিকে যদি জানাতে না পারেন , দয়া করে বিভ্রান্তি মুলক কথা বলে দেশ ও জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের খাটো করবেন না।