ক্যাটেগরিঃ সেলুলয়েড

গত এক মাস পূর্বে একটি পোস্ট লিখেছিলাম । তাতে বলা হয়েছিল ভারতীয় নাগরিকরা আমাদের চ্যানেল গুলো দেখতে পায় না সেই বিষয়ে । আজ আবার লিখতে বসলাম । তবে এবারের ব্যাপারটা ভিন্ন । গতকাল ঢাকার আনুমানিক আটটি হলে ভারতীয় বাংলা ছায়াছবি জোর মুক্তি পায় । এই খবর শুনে আমি বিস্মিত হয়েছি । যেখানে ভারতে আমাদের চ্যানেল গুলো চলে না সেখানে আমরা তাদের দেশের সংস্কৃতি পয়সা দিয়ে কিনে এনে লালন করছি । বাহ !বাংলাদেশ । বাহ!

এমনিতেই গত কয়েকবছর ধরে আমাদের চলচিত্রে মন্দা ভাব বিরাজ করছে । এছাড়া একেক্টি ছবি করতে আমাদের বাজেট খুব কম । তাই পরিচালক ইচ্ছে করলে ও ভারতীয় আদলে একটি ছবি নির্মাণ করতে পারেননা । আর সেই কারনে আমাদের চলচিত্র গুলো আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দাপটের সাথে চলতে পারেনি । আর পারার কথা ও নয় । যেখানে ভারতীয় একটি ছবির জন্য নায়ক নায়িকারা যে পরিমান পারিশ্রমিক পান তা দিয়ে আমাদের দুই একটি ছবি অনায়াসে হয়ে যায় । সল্প বাজেটের ছবি গুলো ও কিন্তু মাঝে মাঝে খ্যাতি বয়ে নিয়ে আসছে ।

এখন যদি দেশে অবাধে ভারতীয় ছবি প্রদর্শন হয় , তাহলে আমাদের চলচিত্র গুলোর কি দশা হবে ভেবে দেখেছেন কি । ভারত প্রথমে সল্প মুল্যে এসব ছবি প্রদর্শনের জন্য দিবে কারন তারা চাইবে তাদের চলচিত্রের বাজার এই দেশে ও গড়ে উঠুক । আর এতে করে দিনে দিনে আমাদের চলচিত্র গুলো মুখ থুবড়ে পড়বে । স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে আমাদের চলচিত্র বেশ শক্তিশালী অবস্থানে থাকলে ও আজ আর সেখানে নেই । মাঝ খানে অশীলতা এবং মান উপযোগি ছবি না থাকায় চলচিত্রের হাল খুব খারাপ ছিল । ইদানিং চ্যানেল আই এবং অন্য বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান তাদের ব্যানারে প্রশংসনীয় বেশ কিছু চলচিত্র উপহার দিয়ে আমাদেরকে আশান্বিত করেছে । আর সেই সময়ে যদি এমন হয় তাহলে আমাদের চলচিত্রের অবস্থা কি হবে তা সহজে অনুমান করা যায় ।

স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলোর সাথে পাল্লা দিয়ে ইদানিং চলচিত্র গুলো কে টিকে থাকতেই হিমশীম খেতে হচ্ছে । তখন ভারতীয় চলচিত্র প্রদর্শন এই শিল্পকে একেবারে ধ্বংসের দাড় গোড়ায় নিয়ে যাবে । আসুন আমরা সকলে মিলে এর বিরুদ্ধে জনমত্র গড়ে তুলে আমাদের চলচিত্রকে রক্ষা করি ।