ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

এতদিন পরস্পরকে হত্যা করত ছাত্রলীগ। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তা নিয়মিত ঘটে চলেছে। ছাত্রলীগের সে গুরুত্বপূর্ণ (!) চরিত্র এখন ধারণ করে নিয়েছে আওয়ামী লীগ। পরপর দুজন আওয়ামী লীগ নেতা ও নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি খুন হয়েছেন নিজ দলের লোকজনের হাতে।

গতকাল নরসিংদী পৌরসভার মেয়র লোকমান হোসেন খুন হয়েছেন নিজ দলের লোকজনের হাতে। সেখানে অভিযোগের তীর ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজি উদ্দিন আহমেদ রাজু দিকে।

এরপর গুলিবিদ্ধ হওয়ার দুইদিন পর মারা গিয়েছেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী আবদুল হালিম। তাকেও হত্যা করেছে নিজ দলের লোকজন। এ ঘটনায় ইতোমধ্যে দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোল্লা আকরাম হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তার মানে আওয়ামী নিধন শুরু! নিধন অভিযান পরিচালনা করছে আওয়ামী লীগ নিজেই!