ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

ভোর-সকালে আপনি যখন ফ্রেশ হবার জন্য বেসিনে আসলেন (হল, হোস্টেল অথবা মেসে), বেসিনের ট্যাব ব্যবহার করার সময় খেয়াল করলেন যে, আপনার পাশের বেসিন ব্যবহারকারী এত জোরে পানি মুখে মারছেন যা আপনাকে ভিজিয়ে দিচ্ছে । অথচ উনি খেয়ালই করছেন না যে, ওনার জন্য পাশের জনের অসুবিধা হচ্ছে ।

পরে যখন ক্যান্টিনের কাউন্টারের পাশের টেবিলে বসে খাচ্ছেন, এমন সময় কেউ একজন হাত ধুয়ে এসে হাত মোছার আগে এমন ভাবে হাত ঝাড়া দিল যাতে করে এবার শুধু আপনার গায়েই পানি পড়ল না, সাথে সাথে আপনার খাবারের ওপরও পড়ল । এমন পরিস্থিতিতে অনেক সময় ইচ্ছা থাকলেও কিছু বলা হয়ে ওঠেনা । কারণ, এটা ব্যক্তিগত এমন সূক্ষ্ণ আচরণ যা এই পর্যায়ে এসেও যারা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না তাদেরকে একদিনে শেখানো সম্ভব না ।

এ বিষয়ে কথা ওঠায় আমার হলের এক বড় ভাই বলেছিলেন, কিছু মানুষের বোধ শক্তির কিছু সাইড অফ থাকে । যার কারণে এই সূক্ষ্ণ বিষয় গুলো চোখেই পড়েনা ।

আচ্ছা, এবার আপনার আবাসিক ভূবন ছেড়ে একটু বাইরের দিকে আসি । অল্প দূরত্বের গন্তব্যে যেতে বাসে উঠলেন । ছিট না থাকায় আপনি দাঁড়িয়ে আছেন । এমতাবস্থায় নতুন স্টপেজ হতে আমি একই বাসে উঠে আপনার পাশে দাঁড়ালাম । আমি এমন ভাবে দাঁড়ালাম যাতে করে আমার এক পা আপনার এক পায়ের উপর পড়ল, এবং এভাবেই আমি দাঁড়িয়ে রইলাম । আমি বুঝতেই পারলাম না যে, আমার পা আপনার পায়ের উপর আছে । আপনি সেটা বলার পর আমি বুঝে পা সরিয়ে নিলাম ।

উপরিউক্ত আচরণের মত প্রতিনিয়ত কোনো না কোনো ঘটনা আমাদের সাথে ঘটছেই । এমন কিছু আপনার সাথে ঘটে থাকলে আপনি ভোগান্তির শিকার । তেমনিভাবে আপনিও এ ধরণের আচরণ করলে আপনার পাশের জন ভোগান্তির সম্মুখীন হবেন, এটা মনে রাখা জরুরী ।

 

https://www.facebook.com/tutul.islam.54