ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

ভারত বাংলাদেশকে সম্পূর্ণরূপে দাস করার জন্য উঠে-পরে লেগেছে। বাংলাদেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে ভারতের অযাচিত হস্তক্ষেপ এটাই প্রমাণ করে যে, বাংলাদেশ ভারতের রক্ষিতা বই কিছু না। ভারত খেতে খাব ঘুমাতে দিলে ঘুমাবো বসতে দিলে বসব শুতে দিলে শোব এ রকমটিই যেন হয়েছে। বাংলাদেশ কে অর্থনৈতিকভাবে ধ্বংস করাই ভারতের মূল উদ্দেশ্য। বিভিন্ন গোপনীয় শর্তের ভিত্তিতে পুতুল সরকার বসিয়ে রেখে বাংলার বুকে ছুরি চালিয়ে মজা লুটছে ওরা। যত্রতত্র সীমান্তে আমাদের জনগণকে হত্যা করাটা যেন একটা খেলায় পরিণত হয়েছে। গত ২০০৮ -এ এএল বাংলাদেশের ক্ষমতা দখল করার পর থেকে ভারতের শর্ত অনুযায়ী কাজ করতে থাকে- *২৫ ফেব্রুয়ারী বিডিআর বিদ্রোহ এবং সেনা সদস্যদের হত্যা, *মুল্যস্ফীতি *সারা দেশব্যপী হত্যা, খুন, গুম, *দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অরাজকতা, *শেয়ার বাজার ধ্বংস, *ডিসিসি কে দুই ভাগ করা, *তত্ত্বাবধায়ক সরকার রাখা না রাখা নিয়ে নাটক *ট্রানজিটের নামে ভারতকে রাস্তা দেওয়া, *যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের নামে অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিকভাবে অর্থনৈতিক অরাজকতা সৃষ্টি, *সেনা অভ্যুত্থানের সাজানো নাটক নিয়ে হৈচৈ, *সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড, *সর্বোচচ আদালতের ওপর সরকারী হস্তক্ষেপ, *দেশের সাধারণ প্রতিবাদী জনগণকে হুমকি প্রদান…….