ক্যাটেগরিঃ স্বাস্থ্য

 
2015-01-28t121103z_1_lynxmpeb0r0jd_rtroptp_3_facebook-results_original

-আপনি একটু ডিটেইলস বলুন, অনেকের কাজে লাগবে।
-ম্যাম্‌ , আমি টানা ২৬ বছর নেশা করেছি। পরিবারের সবার অশান্তির কারন ছিলাম। ২১ বছর ফেন্সিডিল গাঁজা খেয়েছি। এই নেশার কারনে অনার্স কম্প্লিট করতে পারিনাই। তারপর ৫ বছর ইয়াবা ছিল আমার নিত্য সঙ্গী।

– আপনি এখন?
– না ম্যাম্‌  , গত তিন বছর ধরে আমি শুধু রং চা খাই। নো সিগ্রেট।

– কিভাবে ভালো হলেন?
-আমার মা আমাকে খুব স্নেহ করেন , মা’র ঋণ কি শোধ করা যায়! আমার স্ত্রী আমাকে অনেক ভালোবাসেন আমি তার কাছেও অনেক কৃতজ্ঞ।

-যা ভেবেছি মা আর স্ত্রী’র ভালোবাসায় ফিরে এলেন?
-না ম্যাম্‌ ৩ বছর আগে আমি একাউন্ট খুলি, তারপর ভালো হয়ে যাই।

-কোন ব্যাংকে একাউন্ট? তাছাড়া টাকা পেলেন কোথায়? কোন কাউন্সেলিং কিংবা রিহ্যাব সেন্টারে ভর্তি হয়েছিলেন?
-না ম্যাম্‌ ,ভালো হতে কোন টাকা পয়সা খরচ করি নাই, কোথাও কোন কাউন্সেলিংও করি নাই।

-গত ৩ বছরে কি একবারও সেই সব স্পর্শ করেছেন?
-না ম্যাম্‌ , যারা মাদক গ্রহন করে আমি তাদের ঘৃণা করি।

-নাইস, এই ঘৃণা করাটাই তাহলে আপনার মূল অনুপ্রেরণা?
-না ম্যাম্‌  ৩বছর আগে আমি ফেসবুক একাউন্ট খুলি, তারপর থেকে দিনের ১৯ ঘন্টা সেখানেই থাকি। ম্যাম্‌ আমি এখন আর কোন নেশা-টেশা করি না।

(জীবন থেকে নেওয়া, টেকেন ফ্রম পেজ mansuba’s counseling )