ক্যাটেগরিঃ প্রবাস কথন

রাত ৩টা।মোবাইলটা বেজে উঠল।ঘুমের ঘুরে রিসিভ করে কানে দিতে-ই ভেসে আসল “ঈদ মোবারক” ।বুঝলাম,আমার ছোট ভাই।আরব আমিরাত থেকে আমাকে ঈদের শুভেচ্চা জানাচ্ছে।আমার ঘুমের আবেশ তখনো কাটেনি।আমি বললাম,

“আজকে তো তোদের ওখানে ঈদ”।”হ্যা,এখন মার্কেটে যাচ্ছি।দুই কেজি মাংস এনে রান্না করে খাব।

বুকের ভেতর মোচড় দিয়ে উঠল।খুব কষ্ট হল তার কথাটি মেনে নিতে।কিন্তু এটাই বাস্তবতা।আমাদের ভাইয়েরা,আমাদের ছোট ভাইয়েরা এভাবে-ই ঈদ পালন করে দূর প্রবাসে।কি যে নিঃসংগতা,কি যে একাকীত্বের মধ্যে তারা এই ধর্মীয় উথসবটি পালন করে তা আমরা উপলব্ধি করতে পারি।তাদের কষ্ট আমরা বুঝতে পারি যখন ঘন্টার পর ঘন্টা ফোন করে কথা বলে তারপরও তাদের তৃপ্তি মেটেনা।
আমার ছোট ভাইয়ের মত লক্ষ লক্ষ ছোট ভাই,লক্ষ লক্ষ সন্তান আজ মধ্য প্রাচ্যে ঈদ উদযাপন করবে চরম একাকীত্ব নিয়ে।প্রিয়জন থেকে অনেক দূরে থেকে ,মনে অনেক দুঃখ নিয়ে তারা ঈদ পালন করে।আমরাও কি মনে খুব খুশি নিয়ে ঈদ পালন করতে পারি যখন আমাদের প্রিয়জনদের জড়িয়ে ধরে বলতে পারিনা “ঈদ মোবারক”।

যখন ছোট ভাইয়ের সাথে মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করছিলাম তখন চোখের কোনে দু’ফোটা জল নিয়ে বলেছিলাম “ঈদ মোবারক”।ঠিক আছে,ভালো থাকিস বলে সেও লাইন কেটে দিল।দু’ভাইয়ের বুকের ভেতরের কান্নাটা কে-ই বা বুঝতে পারবে?
আজ আমার ভাইয়ের মত অনেক ছোট ভাই,বন্ধু মধ্যপ্রাচ্যে ঈদ পালন করবে।
বুক ভেজা কান্না নিয়ে সকলকে জানাচ্ছি “ঈদ মোবারক”।
ভালো থাকিস সবাই।
দেশ থেকে দূরে আছিস কিন্তু দেশের জন্য-ই তো আছিস,তবে আর দুঃখ কিসের?