ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

আদিকাল থেকে পরিবারের সকল সদস্যদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব থাকে পরিবার প্রধানের উপর তাই সে মানব পরিবার হোক বা সিংহের(জন্তুর) পরিবার হোক. আধুনিক যুগে মানব পরিবারের প্রধান যদি কোনো কারণে তার জীবন ও তার পরিবারের জীবন বা মালের  নিরাপত্তা শংকায় থাকেন তখন তিনি দেশের শৃঙ্খলা বাহিনীর শরণাপন্ন হন. সারা বিশ্বের সকল মানুষ এটাই করে, বাহিনীর লোকজন তাকে নিশ্চিত করে |

ব্যাতিক্রম শুধু বাংলাদেশে ..নিরাপত্তা বাহিনী নিরাপত্তা দিতে গিয়ে সেই সাধারণ মানুষের হাতে বাঁশ আর বাঁশি তুলে দিচ্ছে | বাঁশ আর বাঁশি দিয়ে যদি নিজেদের নিরাপত্তা নিজেদেরকেই করতে হয় তাহলে এইসব বাহিনী দেশের কতটা কাজে আসবে তা ভাবনার বিষয় |

তবে কি বাহিনী গুলো দেশের টাকা দিয়ে ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট নাম দিয়ে বাস সার্ভিস ,সুপার মার্কেট , খাবারের দোকান,জমি দখল করে আবাসন নগর, কমিউনিটি সেন্টারের সার্ভিস দিবে জনগণকে ? ব্যাবসা করবে ব্যাবসায়ী ,কোনো বাহিনীর নামে ব্যাবসা কতটা  ভালো একটা গণতান্ত্রিক দেশে তা আলোচনার দাবি রাখে | ভবিষ্যতে যে  ব্যাবসায়িক দ্বন্দে এক বাহিনী আরেক  বাহিনীর উপর চড়াও হবে না  তার নিশ্চয়তা কোথায় ?????